সন্দ্বীপ বাউরিয়া ইউনিয়নে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, স্বর্ণালংকারসহ নগদ টাকা লুট

নিজস্ব প্রতিবেদক : সন্দ্বীপস্থ ১০নং বাউরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ (৫নং ওয়ার্ড) পোড়া মাঝির গো নতুন বাড়ীতে ১৯শে অক্টোবর মঙ্গলবার গভীর রাতে সিঁধ কেটে মোঃ নুরুল আবছার নামক এক ব্যাক্তির ঘরে ঢুকে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।
সরেজমিনে জানা যায়, মোঃ নুরুল আবছার একজন সাংবাদিক সে জাতীয় দৈনিক দিন প্রতিদিন পত্রিকার সন্দ্বীপ প্রতিনিধি ও বাউরিয়া ইউনিয়নে অবস্থিত এরশাদ মার্কেটের একজন বিকাশ ব্যবসায়িক।
সরেজমিনে আরো জানা যায়, সাংবাদিক নুরুল আবছার বলেন ৭/৮ জন মুখোশ ও হাফপ্যান্ট পরিহিত ডাকাতরা সিঁধ কেটে ঘরে প্রবেশ করে এবং আমার কক্ষে ঢুকে আমাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত পা বেধে আমার শিশু পুত্রের গলায় চুরি ধরে প্রায় ঘন্টাব্যাপী তান্ডবলীলা চালিয়ে আলমারী ভেঙ্গে স্বর্নালঙ্কার, নগদ টাকা ও পাশে থাকা দামী মোবাইল সেটসহ প্রায় ৫ লক্ষ টাকার মালামাল ও জরুরী প্রয়োজনীয় ব্যাগে থাকা কাগজপত্র দলিলাদী লুট করে নিয়ে যায়।
সাংবাদিক নুরুল আবছার ঘটনার বিবরণে বলেন – ঘরের অন্য কক্ষে আমার বড় ভাই কাতার প্রবাসী রেজাউল করিম হানিফের স্ত্রীর কাছ থেকে চাবি নিয়ে নগদ প্রায় ৫০ হাজার টাকা ও গহনা নিয়ে নেয়৷ আমার বৃদ্ধ মায়ের গলার চেইন ও কানের দুল এবং আমার বোনের গলার চেইন, কানের দুল ও দুই ভাঙ্গনীর কানের দুল ও গলার চেইন নিয়ে ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করে। ঘটনার টের পেয়ে আমার শ্বশুর (পাশের বাড়ী) আসলে উনাকে মারধর করে হাতে থাকা টর্স লাইট ও মোবাইল ফোন কেড়ে নিয়ে ঘরের বিতরে ঢুকিয়ে দিয়ে তড়িৎ গতিতে পালিয়ে যায়৷ পরে আমাদের সূর চিৎকার শুনে আশে পাশের লোকজন ছুটে এসে আমাকে ও আমার পরিবারের সকলে দেখতে আসে।
জাতীয় দৈনিক দিন প্রতিদিন পত্রিকার সন্দ্বীপ প্রতিনিধি ও বাউরিয়া ইউনিয়নে অবস্থিত এরশাদ মার্কেটের বিকাশ ব্যবসায়িক মোঃ নুরুল আবছারের ঘর ডাকাতির বিষয়ে জানতে চাহিলে সন্দ্বীপ থানার ওসি বশির আহমেদ বলেন, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এ বিষয়ে ১০নং বাউরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ জিল্লু রহমান বলেন, এটাই আমার ইউনিয়নে বড় ধরনের একটি ঘটনা। আমি পুরো ইউনিয়নে মাইকিংয়ের ব্যবস্থা করিতেছি। আমি নিজেও মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করছি।
এসময় স্থানীয় ৫নং ওয়ার্ড থেকে দুই দুইবার নির্বাচিত সফল মেম্বার মোঃ বেলাল উদ্দিন’সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

মন্তব্য