যুক্তরাজ্য দেবে সাড়ে ১০ হাজার ‘শ্রমিক ভিসা’

ব্রিটেনে লরি চালক এবং পোল্ট্রিকর্মীর ঘাটতি কমাতে ১০ হাজার ৫০০ অস্থায়ী কর্মীর ভিসা দেবে দেশটি। ব্রেক্সিট পরবর্তী অভিবাসন নীতি থেকে ইউ-টার্ন নিয়ে ব্রিটিশ সরকার গতকাল শনিবার এ ঘোষণা দেয়। এই ভিসা কার্যক্রম আগামী মাস থেকে ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ চালু থাকবে।

দেশটি চালক ও অন্যান্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ খাতে শ্রমিকের বিশাল ঘাটতির সঙ্গে লড়াই করছে। এতে জ্বালানি সরবরাহ এবং অন্যান্য শিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ট্যাঙ্কার চালকের ঘাটতির কারণে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে পেট্রোল স্টেশনগুলোতে ভিড় সৃষ্টি হয়েছে, সরবরাহের অভাবে গ্যারেজ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য সরকারের আহবান উপেক্ষা করে লোকরা স্টেশনে ভিড় করছে।

যুক্তরাজ্যের রোড হাউলেজ অ্যাসোসিয়েশন (আরএইচএ) বলছে, ব্রিটেনে প্রায় ১০ লাখ চালকের অভাব রয়েছে। ব্রেক্সিট এবং করোনা মহামারির কারণে এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। দেশটির খুচরা বিক্রেতারা সতর্ক করে বলেছেন, চালকের ঘাটতি দূর করা না গেলে ক্রিসমাস উৎসব কেনাকাটার আগে বড় সমস্যা দেখা দেবে। তবে দেশটির সরকার ঘাটতি মেটাতে ৫ হাজার ভারী ট্রাকচালককে জরুরি ভিত্তিতে ভিসা দিচ্ছে। এটা অস্থায়ীভাবে করা হচ্ছে। একইসঙ্গে সাড়ে ৫ হাজার পোলট্রি কর্মীও আনা হচ্ছে বিদেশ থেকে।

ব্রিটিশ রিটেইল কনসোর্টিয়ামের খাদ্য ও স্থায়িত্ব বিষয়ক পরিচালক অ্যান্ড্রু অপি বলেছেন, ৫ হাজার ভিসার সীমা বর্তমান ঘাটতি দূর করতে খুব কম কাজ করবে। শুধুমাত্র সুপার মার্কেটগুলো অনুমান করেছে, তাদের ব্যবসার জন্য কমপক্ষে ১৫ হাজার ভারী ট্রাক ড্রাইভার প্রয়োজন।

উল্লেখ্য, এই পদক্ষেপ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সিদ্ধান্তের বিপরীত, তার সরকার ব্রেক্সিট পরবর্তী অভিবাসন নীতি কঠোর করেছিল, তিনি বিদেশী শ্রমিকের ওপর নির্ভরতার অবসান ঘটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

সূত্র: রয়টার্স।

মন্তব্য

মন্তব্য