আশুলিয়ায় স্বামীর হাতে স্ত্রী খুঁন ; স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা

বিনয় কৃষ্ণ মন্ডল,আশুলিয়াঃ
পারিবারিক কলহের জের ধরে রেবা (৪০) নামের এক স্ত্রীকে তার স্বামী কুপিয়ে হত্যা
করে নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনায়
নিহতের ভাই বেল্লাল মোল্লা বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের
করেছেন।
সোমবার সকালে আশুলিয়ার বাইশমাইল এলাকার গণস্বাস্থ্য মেডিক্যাল কলেজ ও
হাসপাতাল থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
এরআগে রোববার দিবাগত রাত বারোটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত রেবা ঝালকাঠির কাঠালিয়া থানার আমুয়া গ্রামের আব্দুর রশিদ মোল্লার
মেয়ে এবং সে আশুলিয়ার নয়ারহাট ধনিয়া গ্রামের সাইদুল ইসলামের ভাড়া
বাড়িতে স্বামী সন্তান নিয়ে থাকতেন। অভিযুক্ত স্বামী অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য
সাব্বির আলী। তিনি বর্তমানে একটি প্রাইভেট কোম্পানীতে নিরাপত্তাকর্মী
হিসেবে চাকুরী করেন। নিহত রেবা তার দ্বিতীয় স্ত্রী ছিল।
স্থানীয়রা জানায়, সাব্বির দুই বিয়ে করায় প্রায় তাদের সংসারে ঝগড়া-বিবাদ
লেগেই থাকতো। এরই সূত্র ধরে রবিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে পারিবারিক বিষয়
নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। ঝগড়ার একপর্যায়ে সাব্বির ঘরে থাকা সবব্জি
কাটা বটি দিয়ে রেবাকে কুপাতে থাকে। স্ত্রীকে কুপিয়ে নিজের শরীরেও আঘাত
করতে থাকে সাব্বির। এসময় স্থানীয়রা তাদের দুজনকেই উদ্ধার করে গণস্বাস্থ্য
সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক
রেবাকে মৃত ঘোষণা করেন এবং সাব্বিরকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন।
খবর পেয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশ হাসপাতাল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য
রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।
নিহতের ভাই বেল্লাল মোল্লা জানান, তিনি রাজধানীর মগবাজারে থাকেন। ভোর
৫টার দিকে তার ভাগ্নে মোবাই ফোন বিষয়টা জানান। পরে তিনি দ্রæত
আশুলিয়াতে আসেন এবং তার বোনের লাশ দেখতে পান। এঘটনায় তিনি বাদী হয়ে
একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
এবিষয়ে জানতে চাইলে আশুলিয়া থানার এসআই হাচিব সিকদার জানান, মরদেহ
উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
এছাড়া ঘাতক স্বামী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।বলে জানান
তিনি।

মন্তব্য

মন্তব্য