তিতাসে মামলা তুলে নিতে বাদীকে হত্যার হুমকি

আফিফা নৌশিন,স্টাফ রিপোর্টারঃ

কুমিল্লার তিতাসে হত্যা চেষ্টা ও বাড়ি ঘর ভাংচুর এবং লুটের মামলা তুলে নিতে বাদী মোঃ আব্দুল খালেক ও তার পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকি দিচ্ছেন আসামিরা। এতে বাড়ি ছাড়া নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন তারা। মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ৩নং বলরামপুর ইউনিয়নের উত্তর বলরামপুর গ্রামের মোঃ আব্দুল খালেক এর সাথে একই গ্রামের জাহিদ হাসান প্রলয়, হান্নান সওদাগর, মেহেদী হাসান, মালেক সওদাগর ও মোস্তফা সওদাগর গংয়ের জমিজমা ও বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জের ধরে গত ২২ জুলাই সন্ধ্যায় খালেক এর বসতঘরে হামলা চালিয়ে লুটপাট ও ভাংচুর করে। এ সময় তার ঘরে থাকা নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ২৪ জুলাই তিতাস থানায় একটি হত্যা চেষ্টা ও বাড়ি ঘর ভাংচুর এবং লুটের মামলা করেন। এতে আসামিরা ক্ষিপ্ত হয়ে ২৫ জুলাই সন্ধ্যায় বাদীর স্ত্রী ইয়াসমিন বেগমকে দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজসহ তুলে নেওয়ার চেষ্টা করে। পরে ইয়াসমিন এর ডাক চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে তাকে আসামিদের হাত থেকে রক্ষা করে। এবিষয়ে বাদীর ছেলে হাবিব মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তিতাস থানার সেকেন্ড অফিসার মধুসূদনকে বিষয়টি অবগত করলে তিনি সাথে সাথে ঘটনাস্থলে আসেন এবং আসামিরা বাড়ি থাকার পরও গ্রেফতার না করে চলে যান। এ বিষয়ে একাধিক আসামিদের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তিতাস থানার সেকেন্ড অফিসার মধুসূদন বলেন, আসামিরা বাদীকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে যাই এবং আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা করি।

মন্তব্য

মন্তব্য