বিএমএসএস চেয়ারম্যানের সৌজন্যে সাংবাদিকদের সম্মানে ইফতার ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

সৈয়দ রমজান : বিএমএসএস চেয়ারম্যানের সৌজন্যে সাংবাদিকদের সম্মানে ইফতার ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। জাতীয় দৈনিক দিন প্রতিদিনের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ও বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ও খন্দকার আছিফুর রহমানের সৌজন্যে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ এবং সাংবাদিকদের সম্মানে ইফতার মাহফিল ও এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২১ এপ্রিল) নড়াইলের সদর থানাধীন মির্জাপুরে ইসলামী ব্যাংকের ২য় তলায় করোনাকালীন দূরত্ব বজায় রেখে স্বল্প পরিসরে উক্ত আলোচনা সভা শেষে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান খন্দকার আছিফুর রহমানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন- সংগঠনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব মো: সুমন সরদার। বিশেষ আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মির্জাপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই মো: জাকির হোসেন ও ১২নং বিছালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এসএম আনিসুল ইসলাম। এছাড়া আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন- স্থানীয় মেম্বার শেখ আজিম ও আলহাজ্ব খন্দকার রহমত আলী।

খুলনা, যশোর, নড়াইল, ফুলতলা, নড়াইল থেকে আগত সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সাথী তালুকদার, অশোক কুন্ডু, রফিকুল ইসলাম, মো: জিহাদুল ইসলাম, খাইরুল চৌধুরী, মামুন মোল্যা, তরিকুল ইসলাম টলার, মো: জামির শেখ, মীর দিনার হোসেন, মো: আমিনুর রহমান, সৈয়দ আরাফাত হোসেন তাজ, মিতালী, ডা: শিবপদ শুভ, জয়দেব দাস, মো: মাসুদ রানা, মো: হাদিউজ্জামান, মো: মুরাদ হোসেন, এস এম মোমিনুর রহমান, কে,এম আলী, মো: মিল্টন শেখ, শেথ মোহিতুল ইসলাম রানা, মিনারুজ্জামান মিরন, সৈয়দ বিশারত হোসেন রাজা, মাহমুদুল হাসান নিপুন, সৈয়দ রমজান আলী সহ ৪৭ জন সাংবাদিক। সার্বিক সহযোগীতায় ছিলেন-সৈয়দ জিম ও খন্দকার আবু হানিফ শ্রাবন।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত বিশেষ অতিথিবৃন্দ সাংবাদিকদের এই মহতী সভায় উপস্থিত হয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ এবং সংগঠনের নেতাকর্মী ও সাংবাদিকদের নিজ নিজ অবস্থানে থেকে সার্বিক সহযোগীর আশ্বাস দেন। সার্বিক মঙ্গল ও সংগঠনের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান খন্দকার আছিফুর রহমান বলেন, আমি আমার নিজের জন্য বিএমএসএস প্রতিষ্ঠা করিনি। আমি অসহায়, নির্যাতিত সাংবাদিকদের কন্ঠস্বর হিসেবে সংগঠনটির ছায়াতলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করতে আমি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আপনাদের নেতৃত্ব দেয়ার যোগ্যতা আমার নেই; আমার যোগ্যতা লাগবেনা। আমার যোগ্যতা আপনারা সাংবাদিক ভায়েরা। যাদের একই স্থানে ঐক্যবদ্ধ করতে পেরেছি এটাই আমার যোগ্যতা।

তিনি আরো বলেন, এই পেশায় থেকে আমার উপর হামলা, মামলা বা ষড়যন্ত্রের যত হুমকি আসুক তাতে আমার কিছু আসে যায় না। তবে, আপনাদের তথা সাংবাদিকদের দিকে যদি কেউ এক আঙ্গুল তোলে তাহলে প্রতিবাদে আমাদের হাজার হাজার হাত একসাথে সারা বাংলাদেশে উঠবে ইনশাল্লাহ।

সভাপতির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় মহাসচিব মো: সুমন সরদার বলেন, সংগঠনের আত্মপ্রকাশের পর সংগঠনের একটি অংশ সাংবাদিকদের কাছে আসতে পেরে আমি সত্যিই আনন্দিত। আপনারা আমাদের ডাকবেন; যে কোনো সময় পাশে পাবেন।

তিনি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান খন্দকার আছিফুর রহমানের দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রতি আস্থা ও ধন্যবাদ জানান।

মহাসচিব আরো বলেন, খন্দকার আছিফুর রহমানের ডাকে আজ ৪৭ বা ৫০ জন কেন এক সময় সারাদেশে হাজার হাজার সাংবাদিকরা তাদের দাবী আদায়ে এবং সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে ঐক্যবদ্ধ হবে ইনশাল্লাহ।

উপস্থিত সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকরা বিএমএসএস’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও মহাসচিবের নির্দেশনায় ঐক্যবদ্ধভাবে সাংবদিকদের কন্ঠস্বর হিসেবে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটির ছায়াতলে থেকে একে অন্যের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সকলের সুখ-দু:খে পাশে থেকে পথ চলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এছাড়াও জেলায় জেলায় প্রথমিক ভাবে আহবায়ক কমিটি গঠনের কার্যক্রম শুরু করারও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

অনুষ্ঠানটি সার্বিকভাবে সুন্দর, সুশৃঙ্খল ভাবে সম্পন্ন হওয়ায় উপস্থিত সকল নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বিএমএসএস এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান খন্দকার আছিফুর রহমান।

মন্তব্য

মন্তব্য