সাইকেল মার্কায় ভোটের মাধ্যমে একটি বার সুযোগ চান আশরাফুল আলম কচি

খন্দকার আছিফুর রহমান : সাইকেল মার্কায় ভোটের মাধ্যমে একটি বার সুযোগ চান আশরাফুল আলম কচি। আজ ১৫ মার্চ বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে খুলনার ঐতিহ্যবাহী ফুলতলা বাজার বণিক কল্যাণ সোসাইটির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন-২০২১ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

উক্ত নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন ফুলতলা বাজারের ব্যবসায়ীদের আস্থার প্রতীক ঐতিহ্যবাহী সরদার পরিবারের সন্তান, ফুলতলা বাজার বণিক কল্যাণ সোসাইটি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক মরহুম সালে আহমেদ সরদারের ভাতিজা, খুলনা জেলা আওয়ামীলীগ এর সদস্য বিলকিস আক্তার ধারা ও ফুলতলা বাজার বণিক কল্যাণ সোসাইটির সাবেক সফল সাধারন সম্পাদক এবং ফুলতলা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সরদার শাহাবুদ্দিন জিপ্পী -এর বড় ছেলে তারুণ্যের প্রতীক সরদার আশরাফুল আলম কচি। তিনি ফুলতলা বাজারের ব্যবসায়ীদের প্রকৃত সেবক হতে আজকের নির্বাচনে সাধারন সম্পাদক পদে সাইকেল মার্কায় ভোট চেয়েছেন।

আশরাফুল আলম কচি বলেন, ফুলতলা বাজারের ব্যবসায়ীদের স্বার্থ রক্ষার জন্য যে পরিবার শুধু দিয়েই গেছে সেই পরিবারের সন্তান আমি। আমার চাচা সালে আহমেদ সরদার ফুলতলা বাজারের ব্যবসায়ীদের জন্য নিজের রক্ত ও জীবন পর্যন্ত দিয়েছেন। আমিও ব্যবসায়ীদের স্বার্থ রক্ষার প্রয়োজনে নিজের রক্ত দিতে রাজি। আমার বাবা সরদার শাহাবুদ্দিন জিপ্পী’র মতো ফুলতলা বাজারের উন্নয়ন ও ব্যবসায়ীদের প্রকৃত সেবক হতে চাই ।

তিনি আরো বলেন, প্রিয় ব্যবসায়ীবৃন্দ আপনারা আপনাদের আমানত ভোটটি আমাকে সাধারণ সম্পাদক পদে সাইকেল মার্কায় প্রদান করে একটি বার আপনাদের সেবা করার এবং বাজারের উন্নয়নে আমার পরিবারের ন্যায় অবদান রাখতে আমাকে সুযোগ দিন।

আপনারা যদি সকলে মিলে ভোট দিয়ে আমাকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দেন, তাহলে আমি আপনাদের সকলের বিশ্বাসের মর্যাদা রক্ষা করবো। ফুলতলা বাজার হবে একটি আধুনিক মডেল বাজার। আপনাদের ভোটে যদি বিজয়ী হতে পারি তবে আপনাদের প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই হবে আমার প্রথম অঙ্গিকার। ইনশাআল্লাহ আমি আপনাদের প্রকৃত সেবক হিসাবে পাশে থাকবো। চুরি ঠেকাতে নাইটগার্ড বৃদ্ধি করবো। প্রয়োজনে নিজে জেগে থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পাহারা দিব। যেখানে সিসি টিভি নেই সেই সব স্থানে সিসিটিভির আওতায় আনবো ইনশাল্লাহ। দিন শেষে ব্যবসায়ীদের নিরাপদ বাড়ি ফেরা নিশ্চিতের চেষ্টা করবো ইনশাল্লাহ।

জনাব কচি বলেন, ভুল-ত্রুটির উর্ধ্বে কেউ নয়। আমি যদি আপনাদের সাথে কোনো ভুল বা অন্যায় করে থাকি’ দল-মত নির্বিশেষে আপনারা আমাকে আপনাদের সন্তান-ভাই মনে করে মাফ করে আজকের নির্বাচনে সাইকেল মার্কায় ভোট দিয়ে জয়ী করুন। আমি কথা দিচ্ছি- ভালো পথে থেকে আপনাদের সকল বিপদে বুক পেতে আগলে রাখবো। চাঁদাবাজি ও মাদক মুক্ত ফুলতলা বাজার গড়তে শতভাগ চেষ্টা করবো ইনশাল্লাহ।

যেহেতু আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান, আমাকে আপনারা বিজয়ী করলে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তপক্ষের সাথে আলাপের মাধ্যমে ফুলতলা বাজারের ব্যবসায়ীক সুযোগ সুবিধা বাড়াতে যাতায়াতের সুব্যবস্থার চেষ্টা করবো।

মুসলিম-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সবার একটি পরিচয় আমরা মানুষ। তাই সবাই মিলে মিশে সম্প্রিতির বন্ধনে ব্যবসায়ীক পরিবেশ অক্ষুন্ন থাকবে। আপনারা সুযোগ না দিলে শিখবো কি করে। তাই আমাকে একবার অন্তত সুযোগ দিবেন সেই প্রত্যাশা।

উল্লেখ্য, ফুলতলা বাজার বণিক কল্যাণ সোসাইটির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন আজ ১৫ মার্চ সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতীহীনভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন পরিচালনা কমিটি সহ প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিশ্চিত নিরাপত্তা ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

মন্তব্য

মন্তব্য