বাকেরগঞ্জে শিশু-কিশোরকে বেধড়ক পেটানোর ঘটনায় আ’লীগ নেতাসহ দুইজন গ্রেফতার

 

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি

বরিশালের বাকেরগঞ্জে কথিত মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে তিন শিশু-কিশোরকে অমানুষিক নির্যাতন করে থানা পুলিশের নাম করে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন পৌরসভা ৭ নং ওয়ার্ডের আ’লীগ সভাপতি ইদ্রিস সরদার। সোমবার বিকালে উপজেলার পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের ভরপাশা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে ।
জানা যায়, মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে ওই ওয়ার্ডের আয়নাল মিরার পুত্র তারেক মিরা (১৫), তৈয়ব আলী সিকদারের পুত্র হাসান সিকদার (১৪) ও
মৃত হুমায়ুন হাওলাদারের পুত্র শুভ হাওলাদার (১৩) কে দঁড়ি দিয়ে বেঁধে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটায় ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি ইদ্রিস সরদার। স্থানীয়ভাবে ধারনকৃত ওই তিন শিশু-কিশোরকে অমানুষিক নির্যাতনের ভিডিও কয়েকজন সাংবাদিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, আ’লীগ নেতা ইদ্রিস সরদার ও বখাটে মিজান মাঝি দঁড়ি দিয়ে তিন শিশু কিশোরকে বেঁধে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পেটাচ্ছে। এ কাজে তাদেরকে আরো দুই তিন যুবক সহযোগিতা করছে।
নির্যাতনকারী পরিবারের অভিযোগ, নির্যাতন করেও ক্ষান্ত হননি ওই নেতা। তাদের কাছে থেকে কথিত চুরির অপবাদে থানা পুলিশের নাম করে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে। তারা আরও জানান, এলাকার চিহ্নিত ত্রাস ইদ্রিস সরদারের ফের হামলার ভয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পারছে না আহত শিশু-কিশোরদের পরিবার।
এ বিষয় জানতে চাইলে ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি ইদ্রিস সরদার জানান, মোবাইল চুরি করার অপরাধে তাদেরকে পিটুনি দেয়া হয়েছে। টাকা নেয়ার বিষয়টি মিথ্যা।
বাকেরগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার এস আই মোস্তফা কামাল জানান, আটককৃত ইদ্রিস সরদার ও মিজান মাঝিসহ ৪ জনের নামে নিষ্ঠুর ভাবে শিশু নির্যাতনের ৭০ ধারায় একটি মামলা রেকর্ড হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামিদের বরিশাল জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য

মন্তব্য