সম্পূর্ণ অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছে এশিয়া বেকারির খাবার

চট্টগ্রাম জেলা ব্যুরো //
চট্টগ্রাম জেলার পাঁচলাইশ থানার বিবির হাট সুন্নিয়া মাদ্রাসা রোডে অবস্থিত এশিয়া বেকারি তে সম্পূর্ণ অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছে যাবতীয় কেক, বিস্কিট সহ সব ধরনের আইটেম। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বেকারির ভিতরের অবস্থা খুবই অস্বাস্থ্যকর,ময়লা-আবর্জনায় ভরে আছে। ভিতরে যারা কাজ করছেন তাদের কারো হাতে গ্লাভস নেই। সবকিছু হাত দিয়ে প্যাকিং করা হচ্ছে। কেক তৈরিতে ব্যবহৃত জিনিসপত্র অত্যান্ত পুরনো এবং অকেজো। পরিবেশ অধিদপ্তর ছাড়পত্র, বিআইএসটির, লাইসেন্স, ফায়ার সার্ভিসের কাগজপত্র, সিটি করপোরেশন লাইসেন্স কোন কাগজপত্রই এশিয়া বেকারির নেই। আগুন লাগলে নেভানোর মত কোন কিছুই নেই বেকারিতে।এশিয়া বেকারির মালিক দুইজন বলে জানান মোহাম্মদ কামাল হোসেন। একজন তিনি আরেকজন সোহেল মুন্সি।এইভাবে বিনা কাগজপত্রে শহরে অনেক বেকারি চলে বলে আমাদের ধারণা।এছাড়া এশিয়া বেকারিতে শিশু কাজ করছে ৫জন যাদের বয়স ৮/৯ বছর। তিনজন শিশুর সাথে কথা বলে জানা যায় তারা সকাল ৭টা থেকে রাত ৭টা পর্যন্ত কাজ করে। বেতন দেয় ৩০০০টাকা। যেখানে শিশুশ্রম নিষিদ্ধ সেখানে এই বেকারিতে কি করে শিশু শ্রমিক নিয়োগ দেওয়া হয়। শিশুশ্রম আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। অনেক সমস্যায় জর্জরিত এই এশিয়া বেকারি সমাজের জন্য, দেশের জন্য হুমকি হতে পারে। এত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরিকৃত খাবার খেলে জনগণের রোগ এমনিতেই হয়ে যাবে তাই অতিসত্বর এশিয়া বেকারির বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ রইলো।

মন্তব্য

মন্তব্য