কুয়াকাটায় পর্যটকের ছিনতাই হওয়া টাকা ও মোবাইল চারদিনেও উদ্ধার হয়নি

কলাপাড়া প্রতিনিধি //
ঘটনার পর চার দিন অতিবাহীত হলেও কুয়াকাটার পর্যটকদের ছিনতাই হওয়া টাকা ও মোবাইল উদ্ধার হয়নি। ছিনতাইয়ের মূল হোতা অপহরন, ডাকাতি, চাঁদাকাজি, ধর্ষন, ছিনতাই ও চুরিসহ এক ডরজনেরও বেশি মামলার পলাতক আসামী জংলা শাহআলমসহ সহযোগিদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ছিনতাইয়ের সাথে জড়িতদের নাম উল্লেখ্য করে থানায় অভিযোগ দেয়া হলেও ছিনতাই হওয়া টাকা ও মালামাল না পেয়ে ক্ষোভ ও বিস্ময় প্রতাশ করছে ভুক্তভোগী পরিবারসহ স্থানীয়রা। কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্রেরমত একটা গুরুত্বপূর্ন এলাকায় প্রকাশ্য দিনের বেলায় পর্যটকদের উপর হামলা ও টাকাসহ মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনার চার দিন অতিবাহীত হলেও ছিনতাই কারীদের কাউকে ধরতে না পারায় মহিপুর থানা পুলিশের ভূমিকা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। উল্লেখ্য গত ১০ মার্চ বাকেরগঞ্জের পাদ্রীশিবপুর গ্রামের জামাল(২৫) ও ফাতেমা (২০) স্থানীয় মটর সাইকেল ড্রাইভার ইমরান (১৬) কে সাথে নিয়ে কুয়াকাটা ঘুরতে আসে। বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান ঘুরে দুপুর ১২ টায় লেম্বুর চরে আসলে জংলা শাহ আলমের নেতৃত্বে ইব্রাহীম, কবির, ছগির ও হোসেন তাদের উপর হামলা করে টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। ওই দিন সন্ধ্যায় মহিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়। অভিযোগ পেয়ে মহিপুর থানা ও কুয়াকাটা টুরিষ্ট পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তবে রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আসামীরা পলাতক থাকায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এব্যাপারে মহিপুর থানার ইনচার্জ মো: মনিরুজ্জামান জানান, ঘটনার তদন্ত চলছে। সঠিক তথ্য উদঘাটন হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য

মন্তব্য