শ্রীপুরে মিথ্যে তথ্য প্রচারের অভিযোগে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন ব্যবসায়ীর

সাইফুল আলম সুমন নিজস্ব প্রতিবেদক:
গত ৩০ ডিসেম্বর জমি জবর দখলের মিথ্যা তথ্য প্রচার ও মানববন্ধনের প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে শ্রীপুরের মাওনা চৌরাস্তা ব্যবসায়ী মালিক কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মোড়ল । তিনি সম্মেলনে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা ইসরাফিল মোড়লের পরিবারের বিরুদ্ধে মানহানির অভিযোগ করে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেন ।

শনিবার বেলা ১১ টায় মাওনা চৌরাস্তায় ব্যবসায়ীদের ব্যানারে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয় । পরে ওই ব্যবসায়ীর বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ।

সম্মেলনে সফিকুল ইসলাম মোড়ল বলেন, তিনি আত্মীয়-স্বজন পৈত্রিক সূত্রে মালিক হয়ে জমির বুক দখল করে আসছেন । কিন্তু মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের লোকজন প্রকৃত তথ্য গোপন এবং সাজানো তথ্য প্রচারের মাধ্যমে তার সম্মানহানি করেছে, তারা তাকে ভূমিদস্যু’ বানানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে । আদালত থেকে নির্দিষ্ট দাগের জমি নিষেধাজ্ঞার আদেশ দেয়া হলেও তারা কৌশলে তার অন্য জায়গায় কাজ করতে বাধা প্রয়োগ করছে । তিনি এসব ঘটনার সাথে জড়িত মুক্তিযোদ্ধা ইসরাফিল মোড়লের ছেলে আলমগীর হোসেন মোড়ল ও তার সহযোগীদের বিচারের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবি জানান ।

তিনি আরো বলেন আমি কারো জমি দখল করেনি। আমার বাবার পৈত্রিক সূত্রে মালিক হয়ে প্রায় ৪০ বছর ধরে জমিতে বিভিন্ন প্রজাতির ফলদ,বনজ গাছপালা ও বাড়ি ঘর নির্মাণ করে ভোগ দখলে রয়েছি। জমিতে ১৫ বছর ধরে নাসির এন্টারপ্রাইজের নিজস্ব গোডাওন,দোকানপাট,রিক্সার গ্যারেজ,মিনি র্গামেন্টস বিদ্যমান রয়েছে। ইতি র্পূবে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী জোবেদা আক্তার আমার বিরোদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে হয়রানি করছে। তৎকালিল গাজীপুর জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) হারুন অর রশীদের কাছে ২০১৫ সনে অভিযোগ দিলে আমার জমির সমস্ত কাগজ পত্র পর্যালোচনা করে অতিরিক্ত ২০.৫০ শতাংশ জমি আমার কাছে বেশী থাকায় তারা ২১ শতাংশ জমি এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের মাধ্যমে আমার কাছ থেকে নেয়। ১৬.১০.১৯৮১ সনে দানপত্র দলিল মুলে দাবীকৃত এসএ ২১২ দাগে ছিল না, সম্পত্তিটি ২১২ ও ৪০ দাগে ক্রয় করা ছিল। যাহা ২১২ দাগ ভ’ল ছিল,পরর্বত্তিতে আদালতের মাধ্যমে সংশোধন করে। সংশোধিত দাগ হইতে মুক্তিযোদ্ধা ইসরাফিল মোড়ল জীবিত থাকায় অবস্থায় টোটাল সম্পত্তি বিক্রি করে দেয় যাহার তফসিল উত্তরে জেডএ ইসলাম দক্ষিনে মোহাম্মদ আলী মোড়ল পশ্চিমে নুরুল ইসলাম র্পূবে মোহাম্মদ আলী মোড়ল। জমি বিক্রি করার পর ইসরাফিল মোড়ল ২৫ বছর পর মারা যায়। ৩৪ বছর পর দানপত্র দলিল সংসোধন করে কিন্তু ১২৬ দাগের পরির্বতে ২১২ দাগ পতিস্থান করে দেয়। ওয়ারিশ ক্রয়ের সময় ৪০,২১২ ও ২১৩ দাগে ক্রয় করার পর বর্তমানে তারা ভোগ দখলে আছে। ইহার কাতে দাবীকৃত চৌহোদি অংশে আমার কাছে কোন জমি পাবে না। বর্তমানে ক্রয়কৃত সম্পত্তিতে নতুন বাড়ি নির্মাণ করছে যার উত্তরে ইউপি কাচা রাস্তা দক্ষিনে উজ্জল মোড়ল পূর্বে ও পশ্চিমে গ্রহিতার নিজ জোত। ইহার মধ্যে ইসরাফিল মোড়লের কোন জমি নাই।

আমি বঙ্গবন্ধুর একজন আর্দশ সৈনিক,আমরা আওয়ামী পরিবারের লোক। আমার রাজনৈতিক স্বচ্ছতার ইমেজ নষ্ট করতে একটি মহল ঈর্ষানিত হয়ে আমার বিরোদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট মানহানিকর তথ্য প্রকাশ করে সংবাদ প্রকাশ করেছে। আমি সামাজিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি

মুক্তিযুদ্ধার স্ত্রী জোবেদা আক্তার জানান জাল দলিলের অভিযোগে আদালতে মামলা চলমান এ অবস্থায় সম্পত্তির আকার পরিবর্তন না করার বিষয়ে আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে । সবকিছু উপেক্ষা করে শফিকুল ইসলাম মোড়ল জোরপূর্বক মুক্তিযোদ্ধার সম্পত্তি দখলের চেষ্টা করছে । মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করে সম্পত্তি দখল চেষ্টার দায়ে থেকে নিজেকে রক্ষার অপচেষ্টা করছে ।

মন্তব্য

মন্তব্য