চাঁপাইনবাবগঞ্জে নারী ও শিশু নির্যাতনকারীদের শাস্তির দাবিতে এডাবের মানববন্ধন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ সামাজিক অস্থিরতা সৃষ্টি এবং নারী ও শিশু নির্যাতনের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে মানববন্ধন হয়েছে। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সমূহের সমন্বয়কারী প্রতিষ্ঠান এডাব চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা এই মানববন্ধনের আয়োজন করে। রবিবার সকালে জেলা শহরের সোনার মোড়ে মানববন্ধনে অংশ নেয়, জেলার বিভিন্ন স্তরের সাধারণ মানুষ। এসময় উপস্থিত ছিলেন, এডাব চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি আমিনুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি তরিকুল ইসলাম টুকু, মো. ইসরাফিল, কার্যনির্বাহী সদস্য মো. শাহাদাৎ হোসেন মামুন, চিকিৎসা সহায়তা কেন্দ্রের কোষাধ্যক্ষ জহুরুল ইসলাম মাখন, নবজাগরণ প্রতিবন্ধী সংস্থার ক্রীড়া সম্পাদক মারুফ আমিনসহ অন্যরা।
মানববন্ধনে এডাব চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি আমিনুল ইসলাম বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে দেশে নারী ও শিশু নির্যাতন, ধর্ষণ, গুম, হত্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। বাংলাদেশ মহিলা সমিতির হিসেব মতে, গড়ে প্রতিদিন ১১ জন নারী ও শিশু ধর্ষণের শিকার হয়। এবছরের জানুয়ারী-জুন পর্যন্ত ২ হাজার ৮৩টি যৌন হয়রানী ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে, যার মধ্যে ৭ শতাধিক যৌন হয়রানী, ৫’শ ৯২টি ধর্ষণ, ১’শ ১৩টি গণধর্ষণ, ২৬টি ধর্ষণের পর খুন ও শতাধিক ধর্ষণের প্রচেষ্টা হয়েছে।
বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরামের অপর এক হিসেব মতে, গত ৬ মাসে ২ হাজার ১’শ ৫৮টি শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। যার মধ্যে ২৭ জন প্রতিবন্ধীসহ ৪’শ ৯৬ জন ধর্ষণ, ২৩ জনকে ধর্ষণ পরবর্তী খুনসহ ২’শ ৫টি খুন হয়েছে। উদ্বেগের বিষয় এসব ধর্ষণ, খুন ও যৌন হয়রানী হচ্ছে কাছের মানুষের দ্বারাই।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, এতসব ঘটনার পরেও আইনের ফাঁক-ফোকর, দায়িত্বে অবহেলা এবং প্রভাবশালীদের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে এগুলোর প্রকৃত বিচার হয়না। যার ফলে অপরাধ করার উৎসাহ পাচ্ছে অপরাধীরা। বাংলাদেশে নারী ও শিশুর ধর্ষণকারীদের সবোর্চ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড করার দাবিও জানান বক্তারা।

 

মন্তব্য

মন্তব্য