অসহায় বৃদ্ধদের পাশে ফেইজ বুক বন্ধুরা

পিউ জুই : “বন্ধুত্বের মিষ্টি বন্ধন” নামে একটি ফেইজবুক ভিক্তিক র্মিষ্টি যৌথ পরিবার শুরু করেন আফরিন আক্তার। এই গ্রুপটি পরিবারের ভাল লাগা, ভালবাসার আত্বার বন্ধনে সৃষ্টি। সীমিত সংখ্যক বন্ধু নিয়ে গড়ে উঠেছেন বন্ধুত্বের মিষ্টি বন্ধন পরিবার। যেখানে আছে একে অপরের প্রতি সহানুভূতি, ভালবাসা,মায়া, মমতা সর্বোপরি শ্রদ্ধা আর সম্মান। সামাজিক দায়বদ্ধতাকে প্রাধান্য দিয়ে সামনে দিকে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে। পরিবারের প্রতিটি সদস্য একে অপরের প্রতি স্নেহ,আদর,ভালবাসা, শ্রদ্ধ্যা,সম্মান,অরাজনৈতিক এবং ধর্ম যার যার আমরা সবার এই মুল নীতিতে গড়ে তুলেছেন আজকের এই পরিবার। সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে সময় সময় পথশিশু,বয়োজেষ্ঠ,গবীর,এতিম অসহায় বৃদ্ধ্যাশ্রমের পাশে দাঁড়ান এই পরিবারের সদস্যরা। এর আঙ্গীকে ১ম ইভেন্ট গত ২৫শে জানুয়ারী তারিখে এতিম,কুরআনুল কারীমের দ্বীনি শিক্ষায় অধ্যায়নরত ছাত্রদের পাশে এবং ৩রা মে রোজ শুক্রবার ২য় ইভেন্ট – চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার হাউজ#৪৬২,রোড নং#৮,দক্ষিণ পাইক পাড়া,কল্যাণপুর,ঢাকায় একটি বৃদ্ধ্যাশ্রমে পাশে দাড়াঁল “বন্ধুত্বের মিষ্টি বন্ধন পরিবার। ২বেলা খাবার এবং প্রয়োজনীয় ঔষধের কিছু জোগান দেয় এই পরিবার। এসময় উপস্হিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক জনাব,মিল্টন সমার্দার। বন্ধুত্বের মিষ্টি বন্ধন পরিবারে গ্রুপ ক্রিয়েটার আফরিন আক্তার,পরিচালক-এইচ এম রাশিদুল আলম, মাদারী পুর থেকে আসা মোঃনাইম হোসেন সেলিম,কিশোর গন্জ থেকে আসা হাসিম -বিন-জাহিদ, মাগুরা থেকে আসা তাসমিন আলী, সিলেট থেকে আসা মিজানুর রহমান। পরিবারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বক্তব্য দেন ঃ- ঢাকা থেকে – আজরা জাবিন(তুলি)এবং রাশিদুর রহমান (অপু), ধামরাই থেকে আসা- সাথী নোমান, গোপাল গন্জ থেকে আসা- জাহিদ মিলো, নারায়নগন্জ থেকে আসা- সাগির হোসেন রানা, বাগেরহাট থেকে আসা- ফাহিমা আক্তার (সুমি) এবং মিল্টন সমার্দার। পরে উপস্হিত সদস্য,পরিচালক এবং বৃদ্ধ্যাশ্রমের মা,বাবা সহ সকলে একত্রে দুপুরের খাবারে অংশ নেন।এ সময় সংগঠনের সবাই অসহায় বৃদ্ধদের সাথে কিছু সময় কাটান,এ সময় পরিবারের শিশুরাও বাবা ,মা সাথে বৃদ্ধদের খোজ খবর নেয়।বন্ধুত্বেত মিষ্টি বন্ধন ,পরিবারের সদস্যদের অনুদানে চলে এসব সেবা মূলক কার্যকম ।ফেইজ বুক শুধুই যে ক্ষতিকর তা নয় মহত্ব কাজে ও এগিয়ে ,তার প্রমান এই “বন্ধুত্বের মিষ্টি বন্ধন” পরিবার ।

মন্তব্য

মন্তব্য