চট্টগ্রাম সন্দ্বীপে উন্নয়নের জোয়ার

মোঃ গোলাম মোস্তফা, বিশেষ প্রতিনিধি, চট্টগ্রাম বিভাগ : জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় সন্দ্বীপ কে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে রূপকথার শহরে। চট্টগ্রাম ৩ আসনে পরপর ২য় বার নির্বাচিত এমপি, সন্দ্বীপের দীপ রত্ন আলহাজ্ব মাহফুজুর রহমান- মিতা। এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে সন্দ্বীপ কে সাজিয়ে তুলছেন একটি নতুন শহরে। সন্দ্বীপ একটি জনবিচ্ছিন্ন দ্বীপ। যেখানে যাতায়াত থেকে শুরু করে ছিল না বিদ্যুতের আলো। সকল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত এই দ্বীপের জনগণ, এই দ্বীপের সাথে সকল জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল একেবারেই নগণ্য‌। এমপি মহোদয়ের উদারতা এবং জনগণের ভালোবাসায়, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে, নতুন আঙ্গিকে গড়ে তুলছেন জনবিচ্ছিন্ন এই দ্বীপকে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী ইশতেহার এর অংশ হিসেবে, গ্রামকে করা হবে শহর। তারই আলোকে দ্বীপরত্ন জনাব আলহাজ্ব মাহফুজুর রহমান- মিতা, এমপি ।
জনবিচ্ছিন্ন এই দ্বীপের ব্যাপক উন্নয়নের কাজ হাতে নিয়েছেন, তারই ধারাবাহিকতায় শুরু হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহ নানা উন্নোয়েনের কাজ। জনগণের আকাঙ্খিত যোগাযোগ ব্যবস্থা কে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়ে শুরু হয়েছে।
এই প্রকল্পে ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে প্রায় ৬৯ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা। রাস্তার দুই পাশ প্রশস্তকরণ কালভাট নির্মান সহ রাস্তা রক্ষায় গার্ডওয়াল ,মাটি ভরাট এর কাজ। গত ২৩/০১/২০১৯ ইং তারিখে একটি কালভার্ট এর বেজমেন্ট ঢালাই এর মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে নির্মাণ কাজ। এ সময় রাস্তার উন্নয়ন কাজ পর্যবেক্ষণে, জাতীয়- দৈনিক দিন প্রতিদিন পত্রিকা এবং চ্যানেল ৩০ টিভির, চট্টগ্রাম বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানের নেতৃত্বে একটি টিম সন্দ্বীপ যায়। রাস্তার কাজ পর্যবেক্ষণ এর সময় প্রকল্প পরিচালক জনাব জাহিদুল ইসলাম প্রকাশ- জিলানী জানান রাস্তা টির দুই পাশে ৬ ফুট করে প্রশস্তকরণ এবং প্রয়োজনে স্থানে গার্ডওয়াল নির্মাণ, মাটির স্তর থেকে ২ফুট এবং উপরিভাগে ১০ ইঞ্চি পিলার নির্মাণ করা হবে।
রাস্তাটির প্রজেক্ট ইঞ্জিনিয়ার, জনাব রফিকুল ইসলাম জানান ২১ কিলোমিটার রাস্তা প্রশস্ত করার কারণে রাস্তার দুই পাশের অবৈধ স্থাপনা সহ,নানা প্রতিকুলতা,মোকাবেলায়,তারা প্রস্তুতি গ্রহন করেছেন। অবৈধ স্থাপনা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সাধারণ জনগণকে সরিয়ে নিতে অনুরোধ জানান এবং রাস্তা নির্মাণে কাজে অবৈধ স্থাপনা না সরালে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হুমায়ুন কবির বাবলু সাংগঠনিক সম্পাদক আওয়ামী যুবলীগ, আতিকুর রহমান ফাহিম ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক, বাবুল হোসেন প্রকল্প ম্যানেজমেন্ট, সহ স্থানীয় নেতা-কর্মী ও সাধারণ জনগণ। উপস্থিত সাধারণ জনগণের মধ্যে অনেক উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা যায় এ সময় সাধারণ জনগণ বলেন আমাদের দ্বীপ রত্ন আলহাজ্ব মাহফুজুর রহমান- মিতা এমপি,মহোদ্বয় কে অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা, জানিয়ে। আজ এই এমপি মহোদ্বয় ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মহান উদারতায় জনবিচ্ছিন্ন এই দ্বীপের সাধারণ মানুষের কল্যাণে ,
আজ আমরা সন্দ্বীপবাসী উন্নয়নের ছোঁয়া অনুভব করতেছি, বর্তমানে দৃশ্যমান রাস্তাঘাট কালবাট ব্রিজ সহ বিদ্যুৎ এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় যে সকল সুযোগ সুবিধা তিনি করে দিয়েছেন সন্দ্বীপের জনগণ, সারা জীবন মনে রাখবেন। এবং শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে আগামী দিনগুলোতে দ্বীপরত্ন জনাব আলহাজ্ব মাহফুজুর রহমান- মিতা এমপি কে সন্দ্বীপের অভিভাবক হিসাবে সব সময় আমাদের পাশে থাকবেন।

মন্তব্য

মন্তব্য