শরীয়তপুর-২ আসনে আ’লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন জোবায়দা হক

অনলাইন ডেস্ক  // বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর শরীয়তপুর-২ আসনের (নড়িয়া) প্রথম সংসদ সদস্য ছিলেন শহীদ এ এফ এম নুরুল হক হাওলাদার। নির্বাচিত হওয়ার কিছু দিনের মধ্যেই তিনি আঁততায়ীর গুলিতে শহীদ হন। বর্তমানে শরীয়তপুর-২ আসনটি নড়িয়া উপজেলার সাথে ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানাকে যুক্ত করা হয়। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী শহীদ নুরুল হকের সুযোগ্য কন্যা জোবায়দা হক অজন্তা। এ লক্ষ্যে তিনি আজ দুপুরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ের নতুন ভবন (বাড়ি নং# ৫১, সড়ক# ৩/এ, ধানমন্ডি আবাসিক এলাকা, ঢাকা) থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের পর এক প্রতিক্রিয়ায় জোবায়দা হক অজন্তা বলেন, নড়িয়া-সখিপুরের মাটিতে আমার বাবা এমপি নুরুল হকের রক্ত লেগে আছে। এই এলাকার মাটি ও মানুষদের সাথে ছিল তাঁর আত্মীক সম্পর্ক। এই এলাকার উন্নয়নকে মাথায় রেখেই তিনি তাঁর স্বপ্নের জাল বুনেছিলেন কিন্তু তাঁর উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নের আগেই তাকে হত্যা করে এই এলাকার মানুষের স্বপ্ন ভেঙে চুরমার করে দেয়া হয়। আমরা তখন ছোট্ট শিশু ছিলাম। বাবার আদর্শকে বুকে ধারন করে আমরা বড় হয়েছি। আগামী নির্বাচনে আমাকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দিলে নৌকার জয়কে সুনিশ্চিত করে বাবার অসম্পূর্ণ কাজগুলো সম্পন্ন করার মধ্য দিয়ে জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার উন্নয়নের সারথী হয়ে এলাকার মানুষের জন্য নিজেকে নিবেদন করতে চাই। তিনি আশা করছেন দলের মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচিত হলে তার বাবার সুনাম ও ঐতিহ্যকে ধারণ করে জনগণের কাঙ্খিত উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবেন। তিনি ইডেন মহিলা কলেজ থেকে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ থেকে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিলেন। এছাড়া বর্তমানে তিনি আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য। তিনি আশা করেন আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগ তাকে মনোনয়ন দিলে দলের মধ্যে কোন কোন্দল বা অন্তর্দ্বন্দ থাকবে না। সকলে মিলে মিশে এই আসনটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিয়ে নৌকার বিজয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে পারবেন।

মন্তব্য

মন্তব্য