দক্ষিন পানিশাইলে চলছে মাদক ও জুযার রমরমা ব্যবসা

স্টাফ রির্পোটার:

গজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন পানিশাইল গ্রামের ২নং ওয়ার্ডে প্রশাসনের চোখ ফাকি দিয়া চলছে মাদক ও জুয়ার রমরমা ব্যবসা, পানিশাইলে হাজী ভীলায় রাতে চলছে জুয়া দিনে মাদক ব্যবসা। হাজী ভীলার কেয়ারটেকার মনোআরা বেগম ও তার স্বামী খোরশেদ আলম এবং তাদের সহকর্মী কিলার সোহেল সহ হাজী ভীলায় মাদক জুয়া ও নারী ব্যবসা চালাচ্ছে। তাদের ভয়ে কেউ কিছু বলছে না। হাজী ভীলা ও হাজী কালোনীর মালিক হাজী দুলাল হোসেন খাঁনের কাছে জানতে চাইলে তিনি আমাদেরকে জানান আমার ছেলে-মেয়েরা ঢাকার উত্তরায় লেখাপড়া করে তার জন্য পরিবারসহ উত্তরায় থাকি। আমার বাড়িতে মাদক ব্যবসার বিষয়টি আমি জানতে পারলে আমরা কেয়ারটেকার মনোআরা বেগম কে বলি তুমি আমার বাড়িতে থাকেত পারবে না। পরবর্তীতে তিনি আমাকে বলেন আমি বাড়ি ছাড়াতে পারবো না। এবং আমি বাড়ি ভাড়া টাকা চাইলে আমাকে বকাবকি করে এবং বলে তোকে টাকা পয়সা কিছু দিমু না। আমি এ বিষয়ে কাশিমপুর থানায় একটি জি.ডি করে রেখেছি। বর্তমানে আমার বাড়ি ভাড়া টাকা পয়সা কোন কিছু আমাকে দেয় না। এবং আমাকে প্রানশের হুমকি দেয়। কিছু দিন আগে কিলার সোহেল ৩০ কেজি গাজা সহ পুলিশের হাতে ধরা পাড়ে এবং তার নামে জয়দেবপুর থানায় একটি মাদক মামলা হয়। মামলা নং ৭৫ (২) ১৮ পরবর্তীতে সোহেল জামিনে বের হয়ে এসে পূনরায় মাদক ব্যবসা শুরু করেছে। জয়দেবপুর থানায় তাদের নামে একাধিক মামলা রয়েছে তার কিছু মামলা নাম্বার দেয়া হল ৬০/৭৭৮/২৩-০৭-২০১৪ অপহরন আসামী খোরশেদ, মনোআরা, সোহেল। ৫৯/১১/১১ চানমিয়া মাডার, ৯/২৩৭৮-৪/১২/২০১৪ নিজাম মাডার । এরা এলাকার ভাবমূর্তি নষ্ট করছে এবং কোমালমতি শিশুদের মাদকাশাক্তিতে আক্রন্ত করছে। এদের বিষয়ে ভয়ে কেউ কোন প্রতিবাদ করার সাহস পায় না। এলাকাবাসীর দাবি এদের কে আইনের আওতায় আনা হোক।

মন্তব্য

মন্তব্য