ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫১তম সমাবর্তন আজ

অনলাইন ডেস্ক // ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫১তম সমাবর্তন অনুষ্ঠান আজ শনিবার (৬ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় সমাবর্তনের কার্যক্রম শুরু হবে।

সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সভাপতিত্ব করবেন। এবারের সমাবর্তনে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। অধিভুক্ত সাত কলেজের রেজিস্ট্রেশনকৃত গ্র্যাজুয়েটগণ ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজ ভেন্যু থেকে সরাসরি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান বলেন, সমাবর্তনকে ঘিরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। এরই মধ্যে সমাবর্তন অনুষ্ঠানের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সমাবর্তন উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে। নির্বিঘ্নে সমাবর্তন সম্পন্ন করতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি রোভার স্কাউট ও বিএনসিসি সদস্যরাও নিয়োজিত থাকবেন। ঢাবির অধিভুক্ত সাত কলেজের নিবন্ধিত গ্র্যাজুয়েটরা ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজ ভেন্যু থেকে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

৫১তম সমাবর্তনে অংশগ্রহণের জন্য ২১ হাজার ১১১ জন গ্র্যাজুয়েট রেজিস্ট্রেশন করেছেন। এই সংখ্যা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তনের ইতিহাসে সর্বাধিক। অনুষ্ঠানে কৃতী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ৯৬টি স্বর্ণপদক, ৮১ জনকে পি.এইচ.ডি এবং ২৭ জনকে এম ফিল ডিগ্রি প্রদান করা হবে।

সূত্র জানায়, প্রায় শত বছরের ইতিহাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এর আগে ৫০টি সমাবর্তন হয়েছে। ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান সৃষ্টির পর নানা রকম আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী-শিক্ষকরা। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথম (বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০তম) সমাবর্তনের সময় নির্ধারণ করা হয়েছিল ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট। এই সমাবর্তনে স্বাধীন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও আচার্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যোগ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভোরের সূর্য ওঠার আগেই সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে ঘাতকরা। এর পর ১৯৯৯ সালের ১৮ ডিসেম্বর স্বাধীন দেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়। আর সর্বশেষ সমাবর্তন হয়েছে গত বছরের ৪ মার্চ।

মন্তব্য

মন্তব্য