সাতকানিয়ায় ৭৬ কোটি টাকার ৬ প্রকল্পে ৫ হাজার ৬শ মিটার পাথর ব্লকের উদ্বোধন করলেন ড.আবু রেজা নদভী এমপি।

মো ইদ্রিস সাকিল,সাতকানিয়া,চট্টগ্রাম //
অবশেষে দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার দু:খ হিসেবে খ্যাত সাঙ্গু নদীর ভাঙন রোধের জন্য পাথরের ব্লক বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। প্রকল্পের বাস্তবায়ন হলে সাতকানিয়ার চরতী ইউনিয়নের ৬টি গ্রাম নদীর ভাঙনমুক্ত হবে। আর এতে রক্ষা পাবে হাজারো বসত ঘর, কবরস্থান, মসজিদ ও শত শত একর ফসলী জমি। সাঙ্গু নদীতে এই ৬ টি প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ৭৬ কোটি টাকা। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতায় প্রকল্পের কাজ ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে সমাপ্ত হওয়ার কথা রয়েছে। চট্টগ্রাম-১৫সাতকানিয়া লোহাগাড়ার সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভি বুধবার ৩ অক্টোবর ২০১৮ ইং দিনব্যাপী উপরোক্ত ৬ প্রকল্পের কাজের উদ্বোধন করেন।পানি উন্নয়ন বোর্ড পটিয়া পওর শাখা-১ এর উপ-সহকারী প্রকৌশলী অনুপম দাশ জানান, সাতকানিয়া-লোহাগাড়ায় সাঙ্গু ও ডলু নদীর ভাঙনরোধে ৩শ ৩৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে ১১ কোটি ৫২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে দ্বীপ চরতীতে ৭শ মিটার, দক্ষিন চরতীতে ১শ ৫০ মিটার, নলুয়া ইউনিয়নের মখতেয়ারের কুম এলাকায় ৮ কোটি ৭৯ লক্ষ টাকায় ৬শ মিটার, আমিলাইশে ১৫ কোটি ১৫ লাখ টাকা ব্যায়ে ১ হাজার ১শ ৫০ মিটার, উত্তর ব্রাক্ষণডেঙ্গায় ১০ কোটি ১০ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৮শ মিটার, তুলাতলীতে ১২ কোটি ৫৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯শ মিটার ও নলুয়ার মৈশামুড়া এলাকায় ১৭ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১ হাজার ৩শ মিটার মিলিয়ে মোট ৭৬ কোটি টাকা ব্যয়ে শুধুমাত্র সাতকানিয়ার সাঙ্গু নদীতে মোট ৫ হাজার ৬শ মিটার ভাঙন কবলিত এলাকায় ছয় প্রকল্পে পাথরের ব্লক বসানো কাজের উদ্বোধন করা হয়।
এসব প্রকল্প উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন, প্রকল্প পরিচালক ও নির্বাহী প্রকৌশলী বিদ্যুৎ কুমার সাহা, চরতি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাকিম চৌধূরী, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রমিজ উদ্দিন, নলুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তছলিমা আক্তার, আমিলাইশ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এইচ এম হানিফ,আমিলাইশ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জিয়াউর রহমান, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক হারেজ মোহাম্মদ, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য সাইফুল ইসলাম, নুরুল মোস্তাফা চৌধুরী, উপজেলা তাতীলীগের সাধারন সম্পাদক রুহুল্লাহ চৌধুরী, স্থানীয় সাংসদের একান্ত সহকারী সচিব এস এম শাহাদত হোসাইন, উপজেলা যুবলীগ নেতা দিদারুল ইসলাম শিপন, দেলোয়ার হোসেন বেলাল, নুরুল আমিন মেম্বার, সনজিত কারণ, নুরুল হোসাইন, ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুল মন্নান, ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ ইদ্রিচ প্রমুখ।মাননীয় সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভি প্রকল্পগুলো উদ্বোধনকালে স্বতঃস্ফূর্ত জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, তাঁর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এসব মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে নদী ভাঙ্গন সমস্যা থেকে মুক্ত হবে লাখো মানুষ। সাতকানিয়ার দু:খ হিসেবে খ্যাত সাঙ্গু নদীর ভাঙন রোধে তাঁর দীর্ঘ প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করে বলেন, শুধু সাঙ্গু নদী নয়, ডলু নদীতেও ভাঙনরোধে প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সাতকানিয়া-লোহাগায় ৩শ ৩৩ কোটি টাকার নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধ প্রকল্প বাস্তবায়ন হবে। তিনি বলেন, সাংসদ নির্বাচিত হবার পর সাতকানিয়া-লোহাগাড়ায় প্রায় ২ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে।

মন্তব্য

মন্তব্য