কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ডাস্টবিনে নবজাতকের লাশ। 

মোঃ গোলাম মোস্তফা, কুমিল্লা // গত রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ডাস্টবিনে নবজাতকের লাশ। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ডাস্টবিনে হাত-পা, নাড়ি-ভূড়ি মিলেছে এক নবজাতকের। আজ সকালে নবজাতকটির ছিন্ন বিচ্ছিন্ন দেহটি দেখতে পান হাসপাতালের পরিষ্কার কর্মী। পরে তিনি আশেপাশের লোকজনকে বিষয়টি জানালে তারা গণমাধ্যমকর্মীদের খবর দেয়।
স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা দেবিদ্বার থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে নবজাতকের লাশটি উদ্ধার করে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে দেবিদ্বার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) খালেদ মোশাররফ জানান, রাতে কোনো এক সময় কেউ ডাস্টবিনের ময়লার ভিতরে নবজাতকের লাশটি ফেলে যায়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, রাতেই কুকুর বা কোনো জন্তু মরদেহ থেকে মাংস ও মাথার কিছু অংশ খেয়ে ফেলে। এ কারণে অন্যন্য অঙ্গ-প্রতঙ্গ শরীর থেকে আলাদা হয়ে যায়।
জানা যায় হাসপাতালে এমন ঘটনা আগেও ঘটছে।
এ ব্যাপারে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা. আহম্মেদ কবীর জানান, এটি নিতান্তই ঘৃণ্যকর ও মর্মান্তিক কাজ। এ কাজে যদি এ হাসপাতালের কেউ জড়িত থাকে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য

মন্তব্য