মামলায় ভয় দেখিয়ে শ্রীপুরে একরাতেই ঘর নির্মাণ

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:
গাজীপুরের শ্রীপুরে কৃষক পরিবারকে মামলায় হয়রানি করে পুলিশের ভয় দেখিয়ে একরাতেই জমি দখল করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল শনিবার গভীর রাতে পৌর এলাকার কেওয়া পশ্চিমখন্ড গ্রামে (কড়ইতলা) এ ঘটনা ঘটে। জমি দখলকারীদের হাত থেকে রক্ষা পেতে ২ সেপটেম্বর আবুল কাশেম মালের ছেলে ফারুক হোসেন বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি বলে তিনি অভিযোগ করেন। জানা গেছে, ওই এলাকার মমতাজ উদ্দিন পৈত্রিক সূত্রে মালিক থাকাবস্থায় ২০১৩ সনে ফারুক হোসেনের কাছে সাবকাবলা বিক্রি করে দেন। ফারুক হোসেন জমি ক্রয়ের পর খাজনা খারিজ করে ভোগদখলে রয়েছেন। সম্প্রতি ফারুক হোসেনের ওই জমিটুকু স্থানীয় ফাতেমা আক্তার ও তার লোকজন জোরপূর্বক জবর দখলের চেষ্টা করতে থাকে। এক পর্যায়ে ফাতেমা আক্তার বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় একটি মোকদ্দমা করে পুলিশী হয়রানি শুরু করে। পুলিশের ভয়ে মমতাজ উদ্দিনের লোকজন বাড়ীতে না থাকার সুযোগে শনিবার গভীর রাতে ফাতেমা তার লোকজন নিয়ে সাজানো টিনের ছাপড়ার ঘর নির্মাণ করে।

ফারুক অভিযোগ করে বলেন, আমার অভিযোগ পুলিশ আমলে না নিয়ে উল্টো দখলকারীদের পক্ষ নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা নিয়েছে।
মমতাজ উদ্দিন জানান, ফাতেমা আক্তার ওয়ারিশ সূত্রে মালিক হয়ে অনেক আগেই তিনটি দলিল মূলে জমি বিক্রি করে দিয়েছে। দলিল করার পর ফাতেমা তার স্বাক্ষরিত দলিল ভূয়া দাবী করে আদালতে আমাদের বিরুদ্ধে মামলা করলে আদালত আমাদের পক্ষে রায় দেয়।

অভিযুক্ত ফাতেমা আক্তার জানান, আমি আমার ওয়ারিশী সম্পত্তিতে ঘর করেছি। কারো জমি জবর দখল করিনি।

মামলার তদন্তকারী কর্মর্কতা এসআই নাজমুল সাকিব জানান, এক পক্ষের অভিযোগে মামলা হয়েছে। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য

মন্তব্য