বান্দরবানে দুই পক্ষের গোলাগুলি, বাবা-ছেলে নিহত

রাসেল তালুকদার, বান্দরবান প্রতিনিধিঃ বান্দরবানে রুমা উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিবান্দরবান রুমা উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের গোলাগুলিতে বাবা-ছেলে নিহত ও এক ছেলে আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল দশটার দিকে জেলার রুমা উপজেলার পাইন্দু ইউনিয়নের উজানিপাড়ায় এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পরিবারের লোকজন প্রতিপক্ষ বর্তমান কারবারী  মং রে অং কে সন্দেহ করছে।

নিহত ব্যক্তি হলেন হচ্ছেন পাইন্দু ইউনিয়নের উজানিপাড়ার সাবেক কারবারি কে অং ক্রু (৬৫) ও তার ছেলে মং এ চিং (২৫)। আহত আরেক ছেলে ও মং প্রু (২১)।

স্থানীয়রা জানান, সা‌বেক ও বর্তমান কারবারির মধ্যে দীর্ঘ‌দিন ধ‌রে জ‌মি সংক্রা‌ন্ত ‌বি‌রোধ চ‌লে আস‌ছিল। এ ঘটনা‌কে কেন্দ্র ক‌রে সকা‌লে দু’কারবারির ম‌ধ্যে ঝগড়া হয়। প‌রে হঠাৎ গুলাগু‌লি শুরু হ‌লে সা‌বেক কারবারি ও তার বড় ছে‌লে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। ছোট ছে‌লে আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পাইন্দু ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওহ্লা মং মারমা বলেন, ‘দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলিতে কে অং ক্র ও তার এক ছেলে মারা গেছে। আরেক ছেলে আহত হয়েছে। বর্তমা‌নে তা‌কে রুমা উপ‌জেলা স্বাস্থ্য ক‌ম‌প্লেক্স এ ভ‌র্তি করা‌ হ‌য়ে‌ছে।  মং এ চিং এর অবস্থাও আশংকাজনক। এ ঘটনায় তারা বর্তমান কারবারিকে স‌ন্দেহ করছেন বলে জানান।

ওসি মোহাম্মদ শরিফুল ইসলামকে ফোন দিয়ে যোগাযোগ করা যায়নি।রোধের জের ধরে দুই পক্ষের গোলাগুলিতে বাবা-ছেলে নিহত ও এক ছেলে আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল দশটার দিকে জেলার রুমা উপজেলার পাইন্দু ইউনিয়নের উজানিপাড়ায় এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পরিবারের লোকজন প্রতিপক্ষ বর্তমান কারবারী  মং রে অং কে সন্দেহ করছে।

নিহত ব্যক্তি হলেন হচ্ছেন পাইন্দু ইউনিয়নের উজানিপাড়ার সাবেক কারবারি কে অং ক্রু (৬৫) ও তার ছেলে মং এ চিং (২৫)। আহত আরেক ছেলে ও মং প্রু (২১)।

স্থানীয়রা জানান, সা‌বেক ও বর্তমান কারবারির মধ্যে দীর্ঘ‌দিন ধ‌রে জ‌মি সংক্রা‌ন্ত ‌বি‌রোধ চ‌লে আস‌ছিল। এ ঘটনা‌কে কেন্দ্র ক‌রে সকা‌লে দু’কারবারির ম‌ধ্যে ঝগড়া হয়। প‌রে হঠাৎ গুলাগু‌লি শুরু হ‌লে সা‌বেক কারবারি ও তার বড় ছে‌লে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। ছোট ছে‌লে আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পাইন্দু ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওহ্লা মং মারমা বলেন, ‘দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলিতে কে অং ক্র ও তার এক ছেলে মারা গেছে। আরেক ছেলে আহত হয়েছে। বর্তমা‌নে তা‌কে রুমা উপ‌জেলা স্বাস্থ্য ক‌ম‌প্লেক্স এ ভ‌র্তি করা‌ হ‌য়ে‌ছে।  মং এ চিং এর অবস্থাও আশংকাজনক। এ ঘটনায় তারা বর্তমান কারবারিকে স‌ন্দেহ করছেন বলে জানান।

ওসি মোহাম্মদ শরিফুল ইসলামকে ফোন দিয়ে যোগাযোগ করা যায়নি।

মন্তব্য

মন্তব্য