ফাইনাল ম্যাচে এগিয়ে ফ্রান্স

ফাইনাল ম্যাচে লড়ছে ফ্রান্স-ক্রোয়েশিয়া। ম্যাচের ১৮ মিনিটের মাথায় ক্রোয়েট খেলোয়াড় মানজুকিচের আত্মঘাতী গোলে ফরাসিরা এগিয়ে যায়। তবে ফরাসিদের গোল উৎসব টিকেনি বেশিক্ষণ। ১০ মিনিট পরেই বীরের মতো সমতায় ফিরে ক্রোয়েশিয়া। ইভান পেরেসিসের অসাধারণ গোলে ২৮ মিনিটের মাথায় সমতায় ফিরে ক্রোয়েশিয়া।

তবে নাটক এখন শেষ হয়নি। এবার গ্রিজম্যান পেনালটি থেকে গোল দিয়ে এগিয়ে দেন ফ্রান্সকে। ৩৮ মিনিটের মাথায় গোলটি করেন গ্রিজম্যান।ফরাসিরা ৩য় গোলটি দেয় ৬০ মিনিট এর সময় এবং ৪র্থ গোলটি দিয়ে ফরাসিরা তাদের জয় নিশ্চত করে।কিন্তু ক্রোয়েশিয়া ২য় গোল দিয়ে ৪-২ গোল নিয়ে এদিয়ে যাচ্ছে। আজ রোববার লুঝনিকিতে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় ফাইনালের মহারণ শুরু হয়।

সেমিফাইনালে শক্তিশালী বেলজিয়ামকে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠে ফ্রান্স। ফরাসিদের দলে রয়েছে এমবাপ্পে-পগবাদের মতো একঝাঁক তরূণ তারকা। অন্যদিকে সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠে ক্রোয়েশিয়া। এর আগে ফিফা বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল পর্যন্ত পৌঁছালেও ফাইনালে উঠার স্বাদ পায় দেশটি।

১৯৯৮ সালের চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। সে বার তারকায় ভরপুর ব্রাজিলকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয় ফ্রান্স। এরপর ২০০৬ সালে ফাইনালে উঠলেও ইতালির কাছে হেরে দ্বিতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়া থেকে বঞ্চিত হয় দেশটি।
এখন ও ৪-২ গোলে এ এগিয়ে ফান্স।

মন্তব্য

মন্তব্য