শ্রীপুরে শশুরকে পুত্রবধূর মারধর, বিছানায় শুয়ে কাতরাচ্ছেন বৃদ্ধ শশুর

সাইফুল আলম সুমন,নিজস্ব প্রতিবেদক//
গাজীপুরের শ্রীপুরে ভাত চাওয়ায় পুত্রবধূর নির্যাতনে মাথায় আঘাত পেয়ে ব্যথায় বিছানায় শোয়ে কাতরাচ্ছেন ৭০বছরের বৃদ্ধ এক শশুর। গত শনিবার শশুরের ওপর নির্যাতন চালায় পুত্রবধু। ঘটনার পর রোববার বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে স্বামীসহ পুত্রবধূ। গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার কেওয়া পূর্বখন্ড চেয়ারম্যানবাড়ি মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার শুক্কুর আলী(৭০) উপজেলার কেওয়া পূর্বখন্ড গ্রামের বাসিন্দা। তার ছেলে আনোয়ার হোসেন(৪২) ও ছেলে স্ত্রী শামছুন্নাহার। ছেলে স্থানীয় বাজারের মুদি ব্যবসায়ী।

সরেজমিন রোববার বৃদ্ধের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, নিজের জমিতে তার সন্তান ২৫কক্ষের সুবিশাল বাড়ি তৈরি করে ভাড়া দিয়ে রেখেছেন। সেখানে একটি কক্ষের পাশে ছাপড়া দিয়ে তৈরি খুপড়ির মতো ঘরে রেখেছেন বৃদ্ধ বাবাকে। ঘরের দরজা,জানালা কিছুই নেই। ইট বিছানো মেঝেতে একটি পুরাতন তোষক পাতা। বৃষ্টি হলে এ ঘরে পানি পড়ে।ঝড়ে পুরো ঘরেই ছড়িয়ে পড়ে পানি। অথচ এটি তাঁর নিজের জমি। তবে বৃদ্ধের দাবি তাঁর জমিটি ছেলে কৌশলে তাঁর কাছ থেকে প্রতারণা করে নিয়ে গেছে। এক ছেলে ও দুই মেয়ের জনক তিনি। মেয়েদের বিয়ে দেওয়া হয়েছে।

শুক্কুর আলী জানান, আমি থাকি ছোট ঘরে আর আমার ছেলে থাকে বড় ঘরে। আমাকে ঠিক মতো ঔষধ দেয় না, খাবার দেয় না। বৃষ্টি হলে আমি চিন্তায় অস্থির হয়ে যাই। তিনি আরও জানান, গত শনিবার ছেলেকে বলেছিলেন মেয়েদের জমি থেকে বঞ্জিত করলে কেন? এ নিয়ে ছেলের সাথে কথা কাটাকাটি হয়েছে। পরে এক সময় ছেলের বৌ তাকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে মাথা ফটিয়ে দেয়।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, আঘাতে মাথা থেকে রক্ত ঝড়তে শুরু করলে স্বজনেরা তাকে কেওয়া বাজারের একটি ঔষধের দোকানে নিয়ে চিকিৎসা করায়। এ সময় মাথায় ৫টি সেলাই দিতে হয়েছে।

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক(এসআই) মহসিন বলেন, খবর পেয়েছি। আমার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেব।

মন্তব্য

মন্তব্য