হত্যার রাজনীতি অবলম্বন করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসেনি বলেছেন মেহের আফরোজ চুমকি

ইব্রাহিম খন্দকার.সিনিয়র রিপোর্টারঃ

আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি এমপি বলেছেন, হত্যার রাজনীতি অবলম্বন করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসেনি। দেশ ও জনগণের সেবা করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে। দেশের উন্নয়ন ও জনগণের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য আওয়ামী লীগ রাজনীতি করে আসছে। হত্যার রাজনীতির মাধ্যমে বিএনপি ক্ষমতায় আসে। খুন ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের মাধ্যমে স্বৈরাচার এরশাদ ক্ষমতায় আসে।

এরশাদ ক্ষমতায় আসার পর তার ভাইখ্যাত আজম খান বেপোয়ারা হয়ে সন্ত্রাসী রাজত্ব কায়েম করতে থাকে। ১৯৮৪ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর ২২ দলের আহুত হরতাল চলাকালে মিলিছে নেতৃত্ব দেয়ার সময় আজম খান তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে কালীগঞ্জের মাটি ও মানুষের নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ময়েজউদ্দিনকে প্রকাশ্যে দিবালোকে হত্যা করে। শহীদ ময়েজউদ্দিন হত্যায় আজম খানসহ ১৩ জনের যাব্বজীবন কারাদন্ড দেয় আদালত। তৎকালীন এরশাদ রাষ্ট্রপতির ক্ষমতাবলে শহীদ ময়েজউদ্দিনের খুনিতে রাষ্ট্রীয়ভাবে ক্ষমা করে দেয়। এই ক্ষমা ছিল বাংলার ইতিহাসে এক কলঙ্কজনক অধ্যায়।
শহীদ ময়েজউদ্দিন রাজনীতিকে জনসেবা হিসেবে নিয়ে মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন। তাঁর মেয়ে হিসেবে বাবার অসমাপ্ত কাজগুলো করে যাচ্ছি। বাবার ব্রত নিয়ে মানুষের সেবা করে যাচ্ছি। দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করছি। রোববার দুপুরে কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে শহীদ ময়েজউদ্দিনের ৩৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এক আয়োজনে সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মেহের আফরোজ চুমকি এমপি এসব কথা বলেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন সরকারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভাটি পরিচালনা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এইচ.এম আবু বকর চৌধুরী। এই সময় সভায় বক্তব্য রাখেন, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট আশরাফী মেহেদী হাসান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোয়াজ্জেম হোসেন পলাশ ও কালীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম রবিন হোসেন প্রমুখ।
পরে শহীদ ময়েজউদ্দিনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল এবং তবারক বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য

মন্তব্য