সৌদিতে প্রোজেক্টাইল হামলায় আহত ৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলীয় জিজান প্রদেশে সামরিক প্রোজেক্টাইল হামলায় দেশটির অন্তত পাঁচ নাগরিক আহত হয়েছেন। ইয়েমেনের বিদ্রোহীগোষ্ঠী হুথিরা এই হামলা চালিয়েছে বলে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে।

সৌদি রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এসপিএ দেশটির প্রতিরক্ষা দফতরের মুখপাত্রের বরাত দিয়ে বলছে, জিজান প্রদেশের সীমান্ত এলাকার একটি গ্রামে সামরিক প্রোজেক্টাইল হামলায় তিনটি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে পাঁচ বেসামরিক নাগরিক সামান্য আহত হয়েছেন।

তবে হুথি বিদ্রোহীরা এই হামলা চালিয়েছে কিনা সেবিষয়ে এখন পর্যন্ত নিশ্চিত কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি। এছাড়া হুথিরাও এই হামলার দায় স্বীকার করেনি।

ইয়েমেনে পাঁচ বছরের বেশি সময় ধরে ইরান-সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে আসছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট। প্রায়ই ইয়েমেনের এই বিদ্রোহী গোষ্ঠী সৌদি আরবের বিভিন্ন অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র এবং ড্রোন হামলা চালায়।

২০১৪ সালে ইরান সমর্থিত ইয়েমেনের বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুথি রাজধানী সানা-সহ দেশটির অধিকাংশ এলাকা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয়। সেই সময় দেশটির প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মনসুর আল হাদি হুথি বিদ্রোহীদের হামলা থেকে বাঁচতে পালিয়ে সৌদি আরবে আশ্রয় নেন।

পরের বছরের মাঝের দিকে ইয়েমেনের পলাতক এই প্রেসিডেন্টকে ক্ষমতায় বসানোর লক্ষ্যে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট ইয়েমেনে হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে বিমান হামলা শুরু করে। সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের এই হামলা শুরুর পর থেকে এক লাখের বেশি ইয়েমেনির প্রাণহানি ও লাখ লাখ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছেন।

জাতিসংঘ বলছে, খাদ্য, বাসস্থান ও নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর মারাত্মক সঙ্কট তৈরি হওয়ায় ভয়াবহ দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছেছে ইয়েমেন।

মন্তব্য

মন্তব্য