আসামি গ্রেপ্তার চেতনানাশক দিয়ে হত্যা মধুপুরে চার খুন

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলা সদরে একই পরিবারের চার সদস্যকে হত্যার ঘটনায় প্রধান আসামি মো. সাগর আলীকে (২৭) গ্রেপ্তার করেছেন র‌্যাব-১২-এর সদস্যরা। গতকাল রবিবার বিকেলে উপজেলার ব্রাহ্মণবাড়ী এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ব্রাহ্মণবাড়ীর মগবর আলীর ছেলে।

টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২ সিপিসি-৩-এর কম্পানি কমান্ডার মেজর আবু নাঈম মোহাম্মদ তালাত জানান, জিজ্ঞাসাবাদে সাগর আলী হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, নিহত আব্দুল গনি সুদের ব্যবসা করতেন। সাগরের সঙ্গে আব্দুল গনির সুদের লেনদেন ছিল। সাগর বেশ কয়েকবার সুদের টাকা দিতে ব্যর্থ হন। গত মঙ্গলবার সাগর আব্দুল গনির কাছে ২০০ টাকার জন্য গেলে তাঁকে অনেক বকাঝকা করে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। এতে সাগর অপমান বোধ করলে তাঁর এক সহযোগীকে নিয়ে হত্যা এবং টাকা ও সম্পদ লুণ্ঠনের পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী সাগরের সহযোগী বাজার থেকে চেতনানাশক সংগ্রহ করে। এরপর বুধবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে সাগর সহযোগীকে নিয়ে গনির বাসায় যান। সাগর পূর্বপরিচিত হওয়ায় গনির কাছে স্বাভাবিকভাবে বাসায় ঢোকার অনুমতি পান। পরে হঠাৎ চেতনানাশক দিয়ে গনিকে অচেতন করেন সাগর ও তাঁর সহযোগী। পরিবারের অন্যরা ঘুমে থাকায় তাঁকে অচেতন করতে সহজ হয়। সবাইকে ঠাণ্ডা মাথায় গনির বাসায় ব্যবহৃত কুড়াল ও আসামিদের ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন সাগর ও তাঁর সহযোগী। এরপর তাঁরা বাসার মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে বাইরে থেকে তালা মেরে পালিয়ে যান। আসামির স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পরে তাঁর বোনের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়ী (মজিদ চালা) থেকে হত্যায় ব্যবহৃত ধারালো চাকু ও লুণ্ঠিত মালপত্র উদ্ধার করা হয়। তাঁর সহযোগীকে গ্রেপ্তার করতে র‌্যাব-১২ অভিযান চালাচ্ছে।

মন্তব্য

মন্তব্য