কুমিল্লা চান্দিনায় ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরীকে ধর্ষণ

মো.শফিকুল ইসলাম সাদ্দাম //

কুমিল্লা চান্দিনায় বিয়ের প্রলোভনে এক কিশোরী (১৫) কে রাতভর ধর্ষণ ও স্বামীর স্বীকৃতি না-দেওয়ায় ওই কিশোরী বিষপানে আত্মহত্যা চেষ্টা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। চান্দিনায় নুরিতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাতভর ধর্ষণ ও পরের দিনে ধর্ষকের পিতা-মাতা কর্তৃক মানসিক নির্যাতনের একপর্যায়ে সোমবার সকাল ১০টার দিকে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ওই কিশোরী। সোমবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে কুচাই তলি কুমিল্লা সরকারি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা জন্য ভর্তি করা হয়।

মেয়ের বাবা’র সাথে কথা বলে জানা গেছে,চান্দিনায় নুরিতলা গ্রামের পার্শ্বের বাড়ি মো.জামাল উদ্দিনের ছেলে মো.তানভির(২২), ধর্ষকের বাসায় নিয়ে যায়। দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ওই সম্পর্কের জেরে বেশ কিছুদিন শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে মো.তানভির । এরই প্রেক্ষিতে গত ৩ মে রবিবার সন্ধ্যায় ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভনে মো.তানভির তার বাড়িতে নিয়ে রাতভর ধর্ষণ করে। পরদিন সকালে ছেলের বাবা-মা বিষয়টি জানতে পেরে মেয়েকে তাদের বাড়ি চলে যাওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। পরবর্তীতে এলাকার  স্থানীয় মাতবর নজু মিয়াসহ ছেলের বাবা-মায়ের উপস্থিতিতে মেয়ে তাদের সম্পর্কের কথা জানায়। ওই কথা শুনে মেয়েকে মো.তানভিরের বাবা-মা মিলে অকথ্য ভাষায় গালাগালিজ  করে ।

কিশোরীর পরিবার এ বিষয়ে চান্দিনা থানায় অফিসার ইনচার্জ এর কাছে অভিযোগ করলে মঙ্গলবার রাতে ১নং আসামী মো তানভীর হোসেন কে গ্রেফতার করে তার বাবা মা পলাতক আছে।এ ব্যাপারে এলাকাবাসীর ধর্ষন কারীর দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করেন।

 

মন্তব্য

মন্তব্য