জেনার চেয়ে বেশি মারাত্মক গীবত

গীবত এখন মানুষের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। সামাজিক ব্যাধি হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে। ফেসবুকের মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে মানুষকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করা হচ্ছে। রাস্তাঘাটে ও সমাজে সর্বদা এর চর্চা করা হচ্ছে। ফলে মানুষ ধ্বংসের দিকে ধাবিত হচ্ছে।রোববার ডিবিসি টিভির টকশোতে এ ইসলামী চিন্তাবিদ বলেন, কারো সম্পর্কে গীবত করা হলে যতক্ষণ পর্যন্ত সে ব্যক্তি গীবতকারীকে ক্ষমা না করবে ততক্ষণ পর্যন্ত আল্লাহপাক তাকে ক্ষমা করবেন না। তিনি বলেন, হাদীসে বলা আছে, কোনো ব্যক্তি যদি জেনা করেও যদি খাস দিলে তওবা করে তাহলে আল্লাহরাব্বুল আলামিন তাকে ক্ষমা করে দেবেন। কিন্তু গীবতকারীকে আল্লাহপাক কখনও ক্ষমা করবেন না। তিনি বলেন, সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ নিলেও এর কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না। তবে এ ব্যাপারে মানুষকে সজাগ করতে হবে। মিডিয়ার মাধ্যমে প্রচারণা চালাতে হবে। প্রত্যেক জুমার নামাজে খুতবার আগে ইমামদের এ বিষয়ে আলোচনা করতে হবে। তাহলে মানুষের ভুল ভেঙ্গে যাবে, সবাই পাপাচার থেকে বিরত থাকবে। অন্য এক হাদীসে বলা হয়েছে, যে ব্যক্তি কারো সম্পর্কে গীবত করবে, সে নিজের মৃত ভাইয়ের গোস্ত খাবে। সুতরাং এ ব্যাপারে সকলকেই সতর্ক এবং সাবধান হতে হবে। আল্লাহর কাছে পানাহ্ চাইতে হবে।

মন্তব্য

মন্তব্য