কলাপাড়ায় চাল চোরের বিচার চেয়ে গন স্বাক্ষর; অভিযুক্ত চৌকিদারের হাতে আহত ৩  

 
এস.এম ইলিয়াস জাবেদ,কলাপাড়া ।।
পটুয়াখালীর কলাপাড়ার মহিপুর থানাধীন ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের চৌকিদার আবু সালে কর্তৃক সরকারি খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ১১ অসহায়ের চাল দীর্ঘ ১৭ মাস ধরে আত্মসাৎ করে খাওয়া গত ২১ এপ্রিল হাতেনাতে ধরে একই ওয়ার্ডের মেম্বার মিজবা খান।
সাথে সাথে তার এই জালিয়াতি ও অনৈতিক কান্ড প্রকাশ পায় বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায়। এবং ভুক্তভোগীরা তাদের চাল আত্মসাৎকারি চৌকিদারে বিচারের দাবিতে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পৃথক পৃথক ভাবে অভিযোগ দায়ের করেন।অভিযোগের পরে লগডাউনের কারনে তেমন কোন শাড়া না আসায় ফের বেপরোয়া হয়ে ওঠে চৌকিদার ফলে তার বিচারের দাবিতে গ্রামবাসীরা মিলে গন স্বাক্ষর উত্তলন করে।ফলে এই স্বাক্ষর কার্যক্রমে এবং বিচার চাওয়ার কারনে চৌকিদার ও তার পরিবারের লোকজন মিলে ৩ জনকে বেধরক মারধর করে।
অভিযোগ কারি সূত্রে জানা যায় বৃহস্পতিবার শেষ বিকেলে চৌকিদারের অপকর্মের বিচারের দাবিতে গন স্বাক্ষরে স্বাক্ষর প্রদান করায় ডালবুগঞ্জের বরকোতিয়া গ্রামের হাসান খান (৩৮), সাহাদাত গাজী (৫৪) ও জিয়া কাজী (৩০) বেধরক মারধর (কিল, ঘুষি, লাঠি পেটা) করে আবু সালেহ চৌকিদার, তার পিতা আইয়ুব আলী ফরাজি, ফারুক ফরাজি, মঞ্জু ফরাজি ও মামুন ফরাজি।
জানাযায় হাসান খান বাদি হয়ে মহিপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ ব্যাপারে মহিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান জানান অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমরা তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবো।

মন্তব্য

মন্তব্য