ধর্ষন থেকে বাচতে এক ব্যক্তির যৌনাঙ্গ কেটে দিলেন গৃহবধূ

রওশন হাবিব,গাইবান্ধা প্রতিনিধি
গাইবান্ধায় ধর্ষণ থেকে বাঁচতে রুহুল আমিন (৪৫) নামে এক ব্যক্তির যৌনাঙ্গ বেøড দিয়ে কেটে দিয়েছেন এক গৃহবধূ। বুধবার (২৯ এপ্রিল) দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ সন্যাসীর চর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রুহুল আমিন ওই গ্রামের আওলাদ হোসেনের ছেলে। তাকে বৃহস্পতিবার সকালে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. আব্দুল কাদের জানান, বহ্মপুত্র নদের চরা লের এই গ্রামের এক জেলের স্ত্রীকে রুহুল আমিন দীর্ঘদিন থেকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। ঘটনার দিন রাতে ওই জেলে নদীতে মাছ ধরতে গেলে রুহুল আমিন তার বাড়িতে প্রবেশ করে। পরে কৌশলে তার শয়ন ঘরে ঢুকে ঘুমিয়ে থাকা গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ওই গৃহবধূ তার হাতের কাছে থাকা ধারালো বেøড দিয়ে রুহুল আমিনের যৌনাঙ্গ কেটে দেয়। তিনি বলেন, অবস্থা বেগতিক দেখে রুহুল ঘরের দরজা ভেঙ্গে দৌড়ে পালিয়ে যায়।
এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আজিজুর রহমান বলেন, রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে এর আগেও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আদালতে মামলা হয়েছিল। পরে বিষয়টি স্থানীয় মাতাব্বররা মীমাংসা করে দিয়েছিলেন। গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. হারুন-অর-রশিদ জানান, রুহুল আমিন নামে পুরুষাঙ্গ কাটা এক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। বর্তমানে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
ফুলছড়ি থানার ওসি কাওছার আলী আমাদের প্রতিবেদককে বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। এখন পর্যন্ত কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য

মন্তব্য