বাংলাদেশ বিমানের সব ফ্লাইট ১৫ মে পর্যন্ত স্থগিত

বুধবার (২৯ এপ্রিল) বিমানের উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার জানান, করোনার কারণে সেফটি ইস্যুতে বিমানের চলাচলের বিষয়ে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। তবে ক্ষেত্রে বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোকাব্বির হোসেন জানান, এই মুহুর্তে আমাদের কোনো যাত্রী নেই। করোনার কারণে টিকিট বিক্রি বন্ধ আছে। তাছাড়া, বিমানবন্দর বন্ধেরও একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।মোকাব্বির বলেন, যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় তখন সিদ্ধান্ত নিবো আমরা বিমান চালাবো কি না। তবে এই মুহুর্তে আমরা বিমান বন্ধ রাখছি। তবে এতে বেশ বড় ধরনের ক্ষতির মুখে পরেছি। কিন্তু এতে আমাদের কিছু করার নেই। যদিও এর আগে ২৭ এপ্রিল বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা ৭ মে পর্যন্ত বর্ধিত করে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ। ফলে বাংলাদেশ থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল বন্ধ থাকবে এ সময়ে।

মন্তব্য

মন্তব্য