গাইবান্ধায় সড়ক অবরোধ করে ত্রানের দাবিতে বিক্ষোভ ও নতুন করে করোনায় দুইজন আক্রান্ত

রওশন হাবিব,গাইবান্ধা প্রতিনিধি //

‘লকডাউন’ ভেঙে গাইবান্ধায় সড়ক অবরোধ করে দিনমজুরদের বিক্ষোভের পর ত্রাণ দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন।শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত গাইবান্ধা নতুন জেলখানার সামনে গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী সড়কে এ অবরোধ করেন কর্মহীন দিনমজুররা।
সদর উপজেলার বল্লমঝাড় ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের দুই শতাধিক নারী-পুরুষের এ বিক্ষোভের সময় সড়কের দুই পাশে জরুরি পরিবহন সেবায় নিয়োাজিত ট্রাকসহ অন্যান্য যানবাহন আটকে পড়ে।পরে গাইবান্ধা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রসুন কুমার চক্রবর্তী ঘটনাস্থলে গিয়ে ত্রাণ দেওয়ার আশ্বাস দিলে ১২টার দিকে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। অবরোধে অংশ নেওয়া কর্মহীন দিনমজুররা জানান, গত ২৬ মার্চ ‘সাধারণ ছুটি’ শুরুর পর থেকেই কারো কাছে গেলে করোনার ভয়ে কেউ কাজ দেন না। এছাড়া রিকশা, ভ্যান ও ইজিবাইকসহ কোন যানবাহন নিয়ে রাস্তায় বের হলেই টায়ারের হাওয়া ছেড়ে দেওয়াসহ মারধর করা হয।অনেকেই ঋণ করে সংসার চালাচ্ছেন জানিয়ে তারা অভিযোগ করেন, এ অবস্থায় ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যের সাথে যোগাযোগ করেও এখন পর্যন্ত কোন ত্রাণ পাননি তারা।
এ বিষয়ে গাইবান্ধা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রসুন কুমার চক্রবর্তী বলেন, “কেউ যাতে খাবার ছাড়া কষ্ট না পায়, এজন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ত্রাণ সরবরাহ করা হচ্ছে। এ সময় কারো ঘরে খাবার না থাকলে উপজেলা ও জেলা প্রশাসনকে জানালে আমরা তাদের ঘরে খাবার পৌঁছে দেব। বিক্ষোভকারীরা প্রশাসনের সাথে আগে যোগাযোগ করেনি জানিয়ে তিনি আরও বলেন, এরপরও তাদেরকে একটি তালিকা করে জমা দিতে বলা হয়েছে। তারা যত দ্রুত তালিকা জমা দেবেন যাচাই-বাছাই করে তত দ্রুত তাদেরকে ত্রাণ দেওয়া হবে।
গাইবান্ধায় নতুন করে আরও দু’জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন ডা. এবিএম আবু হানিফ। এনিয়ে গাইবান্ধায় নতুন দু’জন করোনা আক্রান্ত সহ মোট করোনা আক্রান্ত ১৬ জন। গাইবান্ধা করোনা সংক্রান্ত কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) রংপুর মেডিকেল কলেজ ল্যাব থেকে ২১ ব্যক্তির নমুনা পরিক্ষা শেষে রিপোর্ট আসে। এর মধ্যে দু’জনের রিপোর্ট পজেটিভ। আক্রান্ত রোগী দু’জনের একজন গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার অপরজন গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার বাসিন্দা।

মন্তব্য

মন্তব্য