ঘুম থেকে উঠে দরজা খুলতেই দেখলো ত্রান হাতে দাঁড়িয়ে আছেন এমপি মাহফুজুর রহমান মিতা

চট্টগ্রাম জেলা ব্যুরো //
বৈশ্বিক মহামারিতে যেখানে ত্রানের জন্য রীতিমতো আন্দোলন, রাস্তা অবরোধ করছে শ্রমিকরা ঠিক সেই সময় অন্য চিত্র দেখা মিললো চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ উপজেলায়।সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠেই দেখতে পাচ্ছে এমপি মাহফুজুর রহমান মিতা ত্রান নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে গৃহস্থের দরজার সামনে। বললেন আমি আপনাদের এমপি মাহফুজুর রহমান মিতা আর এটা আমার ভালবাসার উপহার।
অন্যরকম ভাবে জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছেন এমপি মাহফুজুর রহমান মিতা।এইভাবে কোন এলাকার এমপি ত্রান নিয়ে মানুষের দরজায় দাঁড়িয়ে থাকতে এই প্রথম দেখা গেলো।
উল্লেখ্য আজ সকাল সাতটায় সারিকাইত ইউনিয়নে প্রত্যেক ঘরের দরজার সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে সন্দ্বীপের এমপি কে।এটা এক অন্য রকমের ভালবাসা। ত্রান নিজের হাতে পৌঁছে দিতে তিনি নিজেই মানুষের বাড়ি বাড়ি যান অথচ সেইসময় মানুষ ঠিকমতো ঘুম থেকেই ওঠেন নাই আর তাই ঘরের দরজার সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেলো তাকে।
চট্টগ্রামে বিভিন্ন জায়গায় যেখানে দেখা যায় খাদ্যের অভাবে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকে, ত্রানের জন্য মিছিল করে  আর উপজেলা সন্দ্বীপে এমপি নিজেই ত্রান নিয়ে জনগণের দরজায় দাঁড়িয়ে থাকে। এক অন্যরকম ভালবাসার উপহার নামক ত্রান পাচ্ছে সন্দ্বীপের জনগণ।
সরেজমিনে কয়েকজন ত্রান গ্রহণকারী ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায় উনার পিতা দ্বীপবন্ধু মোস্তাফিজুর রহমান ছিলেন সন্দ্বীপবাসীর একমাত্র আপনজন ঠিক দ্বীপরত্ন মাহফুজুর রহমান মিতা ও তার পিতার মত সন্দ্বীপবাসীকে আপন করে নিয়েছেন বলেই তারা তাদের এমপিকে দ্বীপরত্ন উপাধিতে ভূষিত করেছেন।আবার অনেকেই বললেন যোগ্য নেতার পুত্র মিতাকে আমাদের এমপি হিসেবে পেয়ে আমরা অনেক খুশি।
মাহফুজুর রহমান মিতা বৈশ্বিক এই মহামারিতে তার সন্দ্বীপের জনগণের পাশে আছেন। সুখে, দুঃখে সন্দ্বীপবাসী তাদের এমপিকে কাছে পাচ্ছেন বলে সবাই জানিয়েছেন।সন্দ্বীপের প্রত্যেকটি ইউনিয়নে ঘুরে ঘুরে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করা শেষ হতে আরো ২/১দিন সময় লাগতে পারে।

মন্তব্য

মন্তব্য