গোবিন্দগঞ্জে স্থানীয়দের বাঁধার মুখে আইসোলেশন সেন্টার বন্ধ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ সরকারি কলেজে স্থাপিত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় আইসোলেশন সেন্টার স্থানীয়দের বাঁধার মুখে বন্ধ করল প্রশাসন। শেষে করোনায় আক্রান্ত প্রথম রোগীকে চিকিৎসার জন্য গাইবান্ধায় আইসোলেশন সেন্টারে পাঠানো হলো।
সারাদেশের মতো গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জেও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য গোবিন্দগঞ্জ সরকারি কলেজে আইসোলেশন সেন্টার স্থাপন করা হয় এবং গত শনিবার উপজেলায় প্রথম করোনায় আক্রান্ত শালমারা ইউনিয়নের মীরাপাড়া গ্রামের রোগীকে উক্ত আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় উপজেলা প্রশাসন। কিন্তুুু পরদিন রবিবার করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশংকায় কলেজের আশেপাশের স্থানীয় লোকজন একজোট হয়ে এই আইসোলেশন সেন্টারে উক্ত রোগী রাখতে বাধা প্রদানসহ এই কলেজে আইসোলেশন সেন্টার না করার দাবিতে মানববন্ধন করে। এর প্রেক্ষিতে গোবিন্দগঞ্জ সরকারি কলেজে স্থাপিত আইসোলেশন সেন্টার বন্ধ করে দেয় উপজেলা প্রশাসন এবং করোনায় আক্রান্ত উক্ত রোগীকে চিকিৎসার জন্য গাইবান্ধায় আইসোলেশন সেন্টারে পাঠানো হয়।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রামকৃষ্ণ বর্মন বলেন, স্থানীয় জনগণের বাঁধার কারনে গোবিন্দগঞ্জ সরকারি কলেজে স্থাপিত আইসোলেশন সেন্টার বন্ধ করা হয়েছে। তবে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬ শয্যার আসোলেশন সেন্টারে চিকিৎসা দেয়া হবে অথবা গাইবান্ধায় আইসোলেশন সেন্টারে পাঠানো হবে।

মন্তব্য

মন্তব্য