ইসলামী ব্যাংক সন্দ্বীপ শাখা যেন মেজবানের স্থল

চট্টগ্রাম জেলা ব্যুরো //
ইসলামী ব্যাংক সন্দ্বীপ উপজেলা শাখা যেন মেজবানের স্থান হিসাবে পরিনত হয়েছে।করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে যেখানে সামাজিক সুরক্ষা বজায় রাখতে প্রশাসন সহ সর্বোস্তরের জনগন মরিয়া হয়ে উঠেছেন ঠিক তখনই সন্দ্বীপ ইসলামী ব্যাংকে কোন নিয়ম কানুনের তোয়াক্কা না করে সামাজিক দুরত্বের ব্যবস্থা না করেই ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা করছে।
আজ সকাল ১১ টায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় মুল সড়কের পাশে ব্যাংক গেইটে দুই শতাধীক যাত্রীর জটলা। ব্যাংকের সিঁড়ি সহ বিশাল অফিসে রয়েছে আরো ৩ শতাধীক গ্রাহক। একজন থেকে একজনের মাঝে এক ইঞ্চি পরিমান দুরত্ব বজায় নেই। নেই কোন একজন সিকিউরিটি গার্ড যে নুন্যতম মানুষকে নিরাপদ দুরত্ব বজায় রাখতে বলবে।
প্রথম দেখাতেই মনে হবে কোন মেজবানের জায়গা এটি বা কোন জন সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। যা এ মুহুর্তে কর্তৃপক্ষের পক্ষ হতে চরম উদাসীনতা বলে প্রতীয়মান হয়েছে।
ব্যাংকের সামনের ব্যবসায়ী ও সমাজ কর্মী খোদাবক্স সাইফুল জানান  অফিসের পিয়নকে ডেকে বার বার মানুষকে সতর্ক করার কথা বললেও তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি।
অন্যদিকে আমাদের এই প্রতিবেদক মানুষের ভীরের কারনে ব্যাংকে ঢুকতে ব্যার্থ হয়ে ব্যাংকের ব্যবস্থাপক জুয়েল কে কেন সামাজিক দুরত্ব বজায়  রেখে লেনদেন হচ্ছেনা সেটা তার  মুঠোফোনে 01815959964 নাম্বারে জানতে চেয়ে বার বার ফোন প্রদান করার পরও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
সন্দ্বীপ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি সুফিয়ান মানিক সহ  সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের একটাই প্রশ্ন প্রশাসনের নাকের ডগায় আইন কানুনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে মানুষকে কেন ওরা করোনার ঝুঁকিতে ফেলছেন। এ জটলার কারনে রোগের বিস্তার ঘটলে এর দায় নেবে কারা?

মন্তব্য

মন্তব্য