নিম্ন আয়ের ১৪ ভাগ মানুষের ঘরে খাবার নেই

করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে গত ৩১ মার্চ থেকে ৫ এপ্রিল পর্যন্ত দেশজুড়ে আড়াই হাজারের বেশি নিম্ন আয়ের মানুষের ওপর এই জরিপ চালিয়েছে ব্র্যাক।শুক্রবার জরিপের ভিত্তিতে তারা বলছে, এই পরিস্থিতিতে দেশে চরম দারিদ্র্যের হার আগের তুলনায় ৬০ শতাংশ বেড়েছে। নিম্ন আয়ের মানুষের ১৪ শতাংশের ঘরে কোনো খাবারই নেই। তবে ২৯ শতাংশের ঘরে খাবার আছে। এতে দেখা গেছে, নিম্ন আয়ের ৯৩ শতাংশ মানুষের আয় কমেছে। চট্টগ্রামে ৮৪ শতাংশ, রংপুরে ৮১ শতাংশ এবং সিলেট বিভাগের ৮০ শতাংশ মানুষের আয় কমেছে।ব্র্যাকের অ্যাডভোকেসি ফর সোশ্যাল চেইঞ্জ প্রোগ্রামের করা জরিপে মাঠ পর্যায়ে ব্র্যাকের মাইক্রোফাইন্যান্স, আরবান ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম এবং পার্টনারশিপ স্ট্রেনদেনিং ইউনিটের কর্মীরা তথ্য সংগ্রহ করেন।ব্র্যাকের হেড অব মিডিয়া অ্যান্ড এক্সটার্নাল অ্যাফেয়ার্স কমিউনিকেশনস রাফে সাদনান আদেল বলেন, এই জরিপে দেশের ৬৪ জেলায় ২ হাজার ৬৭৫ জন নিম্ন আয়ের মানুষের বক্তব্য নেওয়া হয়েছে।দিনমজুরসহ অধিকাংশের আয় ‘শূন্যের কোটায়’। স

মন্তব্য

মন্তব্য