কালীগঞ্জে রান্না ঘরের আগুনে বসত বাড়ি পুড়ে ছাই

মোঃ ইব্রাহীম খন্দকার,সিনিয়র রিপোর্টাস //
গাজীপুরের কালীগঞ্জে রান্না ঘরের আগুন থেকে টিনসেট এক বাড়ির তিনটি কক্ষ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের রাতকানা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন কালীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ শামীম আহমেদ।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ সোমবার উপজেলার রাতকানা গ্রামের নুরুল ইসলামের বাড়িতে দুপুরের রান্না-বান্না করছিল তার স্ত্রী। এ সময় তিনি লাকড়ির চুলায় রান্না বসিয়ে চুলার কাছে ৬ বছর বয়সী শিশু নাতিকে রেখে ঘরের ফ্রীজে রাখা মাছ আনতে যান। এর মধ্যে চুলার আগুন পাশের টিনসেটের একটি ঘরে লেগে যায়। ঘরের ভিতরে রাখা তিনটি পাতার বস্তা এবং দুইটি গ্যাস সিলেন্ডার থাকার কারণে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে-স্থানীয়দের সহযোগীতায় পৌনে এক ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্ত এর মধ্যে বাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।
নুরুল ইসলামের মেয়ের জামাই রফিকুল ইসলাম জানান, ঘরে থাকা বাড়ির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, বাড়ির জায়গা জমির দলিলপত্র, টিভি-ফ্রীজ, স্বর্ণালঙ্কার, নগদ প্রায় ৭০-৮০ হাজার টাকা পুড়ে গেছে। সব মিলিয়ে তিনি প্রায় ৫-৬ লক্ষ টাকার ক্ষয় ক্ষতির আশঙ্কা করছেন।
কালীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ শামীম আহমেদ জানান, আগুনের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগীতায় প্রায় পৌনে এক ঘন্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। ঘরের পাশে রান্না ঘরের লাকড়ির চুলা থেকে আগুনের সুত্রপাত। প্রাথমিকভাবে নগত ৪৫ হাজার পাচশত টাকা এবং বাড়ির জিনিসপত্র সহ প্রায় ২ লক্ষ টাকার মত ক্ষয় ক্ষতির পরিমান হবে বলে তিনি জানান ।

মন্তব্য

মন্তব্য