মাক্স বিক্রিতে কারসাজির দায়ে বিক্রেতার জরিমানা


রওশন হাবিব, গাইবান্ধা প্রতিনিধি //

দেশে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে মাস্ক, হ্যান্ডওয়াশ ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার কিনতে ঝুঁকছেন অনেকেই। এটিকে মওকা হিসেবে নিয়ে গাইবান্ধায় মাস্ক ও হ্যান্ডওয়াশের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন কিছু বিক্রেতা।
এই অবস্থায় এই দুটি ব্যবহার্য জিনিসের দামের কারসাজি বন্ধে মঙ্গলবার অভিযানে নামে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় একটি দোকানকে জরিমানা ও এ ধরনের কর্মকান্ডের পুনরাবৃত্তি যেন না ঘটে সেজন্য সতর্ক করা হয়।
মঙ্গলবার দুপুরে পৌর এলাকার দুলু এ্যান্ড সন্স নামে একটি কসমেটিকস দোকানকে অতিরিক্ত দামে মাস্ক বিক্রির দায়ে দশ হাজার টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুস সালাম। অভিযান পরিচালনাকালে সদর থানা পুলিশ সহায়তা করে।
আব্দুস সালাম জানান, করোনাভাইরাসকে কেন্দ্র এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। প্রতিদিনই আমরা এইসব অসাধু ব্যবসায়ীদের ধরতে অভিযান পরিচালনা করে আসছি। যেখানে অভিযোগ পাচ্ছি সেখানেই অভিযান পরিচালনা করছি।
তিনি আরও বলেন, সরকার বিভিন্ন কোম্পানির হ্যান্ড স্যানিটাইজারের দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে। নির্ধারিত দামের বাইরে কোনও দোকান কিংবা প্রতিষ্ঠান মাস্ক বা হ্যান্ড স্যানিটাইজারের দাম বেশি রাখলে ভোক্তা অধিকারকে জানানোর অনুরোধ করেন।

মন্তব্য

মন্তব্য