সন্দ্বীপে ফসল কর্তনোত্তর ব্যবস্থাপনা ও প্রাথমিক প্রক্রিয়াকরন বিষয়ক প্রশিক্ষণ

বাদল রায় স্বাধীন //
সন্দ্বীপে কৃষি বিপনন অধিপ্তর কর্তৃক স্মলহোল্ডার এগ্রিকালচার কম্পিটিটিভনেস প্রজেক্ট এর আয়োজনে ও ইনস্টিটিউট অফ প্রফেশনাল ট্রেইনিং এন্ড ম্যানেজমেন্ট (আইপিটিএম)এর ব্যবস্থাপনায়  ফসল কর্তনোত্তর ব্যবস্থাপনা ও প্রাথমিক প্রক্রিয়াকরন বিষয়ক দিন ব্যাপী কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আজ ৫ মার্চ উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অফিসে আয়োজিত প্রশিক্ষনে ফল ও সব্জি ফসল সংগ্রহ ও সংগ্রহোত্তর সাধারন কথা,শস্য সংগ্রহ,শুস্ক করা,শস্য মাড়াই, খোসা ছড়ানো,শস্য পরিস্কার করা, সংরক্ষন ও বিপননের জন্য করনীয়,উচ্চ মুল্য ফসল সংগ্রহোত্তর ক্ষতি হৃাসে করনীয়, ফসল কর্তনোত্তর ক্ষতি নিরসন,সংরক্ষনের পদ্ধতি ও স্থান,প্যাকেজিং উপকরন প্রক্রিয়াকরন সহ টমেটো, আমড়া,তেতুল,বড়ই, আমলকি ইত্যাদির  সস তৈরি বিষয়ে হাতে কলমে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়।
প্রশিক্ষকরা বলেন যখন আপনার
 উৎপাদিত ফসলের দাম কমে যাবে অর্থাৎ বিক্রি করে আপনার প্রাপ্য মুল্য পাওয়ার সম্ভাবনা থাকবেনা তখন সেগুলোকে প্রক্রিয়াজাত করে সংরক্ষন করলে আর ক্ষতির সম্ভাবনা থাকবেনা। পরে তা আস্তে আস্তে সুবিধা সময়ে বিক্রি করতে পারবেন। এজন্য এই প্রশিক্ষন অনেক গুরুত্ব বহন করে।
প্রশিক্ষনে প্রশিক্ষক ছিলেন -কৃষিবিদ যথাক্রমে একরামুল ইসলাম,আব্দুর রব, আবু জাফর মোঃ নুরনবী,আব্দুল বাছেদ সবুজ, মার্কেটিং ফ্যাসিলিটেটর ফাহাদ পারভেজ,এসএএও জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।
প্রশিক্ষক একরামুল হক জানান প্রতি ব্যাচে ২৫ জন করে সন্দ্বীপে মোট ১০০ ব্যাচ কৃষক প্রশিক্ষন জুন ২০২০ এর মধ্যে সম্পন্ন করার টার্গেট রয়েছে আমাদের। এবং ট্রেনিং পরবর্তী কৃষকরা এই প্রকল্প হতে বিভিন্ন প্রকার উপকরন সহায়তা সহ প্রক্রিয়াজাত ও প্যাকেটিং বা সংরক্ষনের জন্য বিভিন্ন সহায়তা পাবেন।

মন্তব্য

মন্তব্য