পরিবহণ শ্রমিকদের সচেতনায় গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের কার্যক্রম অব্যাহত

রওশন হাবিব,গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশ পরিবহণ শ্রমিকদের গাড়ী চালনা, মাদক সেবন, গতিরোধ, গাড়ীর কাগজপত্রাদি ও দূঘর্টনা প্রতিরোধে সচেতনতা সৃস্টির লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার উদ্যোগে পরিবহণ চালকদের এ্যালকোহল ডিরেক্টর মেশিন দিয়ে ড্রাগ টেষ্ট, স্পীডগান মেশিন দিয়ে দ্রুতগতি গাড়ীর গতিবেগ নিয়ন্ত্রণ ও আরএফআইডি মেশিন দিয়ে গাড়ীর কাগজপত্রাদি চেকিং কার্যক্রম পরিচালনা করে।

এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকাগামী হানিফ পরিবহণের চালক রেজাউল করিম (৪৫) কে এ্যালকোহল ডিরেক্টর মেশিন দিয়ে ড্রাগ টেষ্ট করার হয়।দ্রুত গামী গাড়ীর গতিবেগ নিয়ন্ত্রণে স্পীডগান মেশিন মহাসড়কে ব্যবহার সম্পর্কে রংপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী শ্যামলী পরিবহণের চালক ছানাউল জানান, মহাসড়কে দূর্ঘটনা প্রতিরোধে সরকার হাইওয়ে থানার মাধ্যমে গাড়ীর গতিরোধ নিয়ন্ত্রণ করায় অনেকাংশে দূঘর্টনা কমে আসছে।

গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল কাদের জেলানী জানান, ৪৫ জন পুলিশ সদস্য নিয়ে হাইওয়ে থানার বিশাল এড়িয়া জুড়ে দূঘর্টনা, মাদক, মহাসড়কে নিষিদ্ধ নছিমন, করিমন, থ্রি হুইলার, ব্যাটারী চালিত অটোবাইক ও ৩ চাকার গাড়ী চলাচল করতে না পারে এর জন্য দিনরাত ৩ জন সাব-ইন্সপেক্টর, ২ জন সার্জেন্ট এর নেতৃত্বে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

মন্তব্য

মন্তব্য