চাঁপাইনবাবগঞ্জে ‘শিশু রিমা ধর্ষণ ও হত্যাকারী’ পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত

জেলা প্রতিনিধিঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জর সদর উপজেলার হরিসপুরে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মারা গেছে চরবাগডাঙ্গায় সাত বছরের শিশু ধর্ষণ ও হত্যার সন্দেহভাজন তরিকুল ইসলাম ওরফে সাদ্দাম। বৃহস্পতিবার রাতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তরিকুল ইসলাম, চরবাগডাঙ্গার গড়াইপাড়ার নোমান আলীর ছেলে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজল ই খুদা জানান, তরিকুল ইসলাম সদর উপজেলার বকচর সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালানো চেষ্টা করছিলো। এসময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয়। আটকের পর তরিকুলকে নিয়ে পুলিশ তার সহযোগিদের ধরতে হরিসপুরের একটি আম বাগানে যায়। সেখানে পৌছামাত্রই তার সহযোগিরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে গুলিবিদ্ধ হয় তরিকুল। পরে তাকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি ম্যাগজিন ও ৫ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

উল্লেখ্য, একদিন নিখোঁজ থাকার পর গত মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারী) সকালে চাঁপাইবাবগঞ্জ সদর উপজেলার চরবাগডাঙ্গা থেকে পুলিশ মুসলেমা খাতুন রিমা নামে ৭ বছরের এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে। তরিকুল ইসলামই রিমাকে ধর্ষণের পর হত্যা করে বলে দাবি করেছে পুলিশ।

মন্তব্য

মন্তব্য