চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ উপজেলায় চলছে অনুমোদন বিহীন ইটের ভাটা

রিয়াদুল মামুন সোহাগঃ চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ উপজেলায় চলছে অনুমোদন বিহীন ১২টি ইটের ভাটা।পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড় পত্র নেই,নেই কোন লাইসেন্স সরকারি নিয়মকে বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখিয়ে চলছে সকল ইটের ভাটা। জাতীয় দৈনিক দিন প্রতিদিন ও দ্বীপ টিভির বিশেষ টিম সরেজমিনে গিয়ে ১৩টা ইটের ভাটা পান।তার মধ্যে পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র আছে মাত্র ৩টার বাকী গুলোর কোন প্রকারের কাগজপত্র নেই।
এম,টি,টি/ রয়েল/,মেম/,মেক্স/বি,বি,সি/ ইয়েস/ এ,ডি,বি/ এ,টি,টি;তাজ/ জি,আর,এম/আকাশ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় সরকারি নিয়ম না মেনেই ইটের ভাটা গুলো চলছে। এই ব্যপারে প্রশ্ন করলে তারা জানান সন্দ্বীপ থানা পুলিশ সব জানেন এবং ইটের ভাটার কমিটির সভাপতি আনোয়ার চেয়ারম্যান। সন্দ্বীপ থানার ওসি শেখ শরিফুল আলমকে ফোন করলে উনি কিছুই জানেন না।

এম,টি,টির কাগজপত্র ঠিক থাকলেও সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে সরকারি খাল খেটে মাটি নিয়ে তারা ইট বানায়। প্রশ্নের উত্তরে এম,টি,টির লোক যদিও জানান খাল খননের পারমিশন আছে কিন্তু সেটা দেখাতে পারেন নাই।

কাগজপত্রের ব্যাপারে প্রশ্ন করলেই সবাই এক কথায় বলেন সবকিছুই সভাপতি জানেন।আর এই ইট ভাটা ১৩টাই চলে আনোয়ার চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে। এইসব ইটের ভাটা চালানোর জন্য ১৩জন মালিক মিলে একটা সংগঠন করে আর সেই সংগঠনের সভাপতি আনোয়ার চেয়ারম্যান।

আনোয়ার চেয়ারম্যান ভারতে অবস্থানের কারণে কথা বলা যায়নি।তবে কাগজপত্র নেই ৩টা ইটের ভাটা ছাড়া অন্য কোনটার৷ অবৈধ ভাবে চলছে এই ভাটা গুলো।

মন্তব্য

মন্তব্য