গোবিন্দগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত আলাল মন্ডলের চিকিৎসাধীন আবস্থায় মৃত্যু হয়েছে

গাইবন্ধা থেকে রওশন হাবিবঃ প্রাণ ভয়ে পালিয়ে থেকেও বাঁচতে পারলেন না আলাল মন্ডল (৩৫)। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে বাড়ী ফেরার পথে পূর্বে থেকে ওৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের হামলায় গুরুতর আহত হলে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় রাত ২ টায় তার মৃত্যু হয়। আজ সকালে স্থানীয় লোকজন হামলার মুল হোতা শহিন মন্ডলকে গোবিন্দগঞ্জ থেকে আটক করে থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ্দ করে। স্বামীকে উদ্ধারের গেলে স্ত্রী শিল্পি বেগম(২৫) ও ভাই আনারুল(৫০) প্রতিপক্ষর হামলায় আহত হয়। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রাখাল বুরুজ ইউনিয়নের উত্তর ধর্মপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আলাল মন্ডল ওই গ্রামের মৃত মৌলত হোসেন মন্ডলের পুত্র।

স্থানীয় ইউপি সদস্য রুহুল আমিন প্রধান নুনু জানান, গতকাল মঙ্গলবার সকালে আলাল মন্ডল বাড়ী থেকে তার কর্মস্থরে গেলে পূর্ব শত্রæতার জের ধরে একই গ্রামের মৃত ছামছুল হোদা মন্ডলের ছেলে শহিন মন্ডল(৪৭) ও তার লোকজন আলাল মন্ডল বাড়ীতে হামলা চালিয়ে ঘরে থাকা আসবাপ পত্র ভাংচুর চালায়।

এসময় প্রতিপক্ষ আলাল মন্ডলকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যায়। ঘরবাড়ী ভাংচুরের খবর পেলেও প্রতিপক্ষের ভয়ে সে সময় বাড়ীতে যায়নি আলাল মন্ডল। পরে দুপুরে পরিস্থিতি সান্ত হলে স্থানীয় ধর্মপুর বাজার থেকে তিনি বাড়ীতে ফিরছিলেন। পথে বাড়ীর আদুরে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকে শহিন মন্ডল তার সহযোগিরা। আলাল মন্ডল পৌছা মাত্র তার উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এতে সে গুরুতর আহত হয়। হমলার ঘটনা শুনে তার স্ত্রী ও ভাই এগিয়ে আসলে তারাও হামলার শিকার হন। পরে স্বজনরা তাদেরকে উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে । গুরুতর আলাল মন্ডকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়।

গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ একে এম মেহেদী হাসান আলাল মন্ডলের মৃত্যুর বিষটি নিশ্চিত করেছে। তিনি বলেন এঘটনায় জরিত শহিন মন্ডলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তিতি চলছে জানান।

মন্তব্য

মন্তব্য