ওবায়দুল কাদের বললেন ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে সরকার হস্তক্ষেপ করবে না

অনলাইন ডেস্ক :সোমবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন উপলক্ষে কৃষকের স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সিটি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।এটা স্থানীয় সরকার নির্বাচন।এই নির্বাচনে হারলে সরকারের পরাজয় হবে না।তিনি বলেন, সরকারের উন্নয়ন নস্যাৎ করার জন্য একটি চক্র নানাবিধ ষড়যন্ত্র করছে। তাদের প্রতিহত করতে হলে শক্তিশালী সংগঠন গড়ে তুলতে হবে। তাহলে যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলা করা সম্ভব। সরকার ও দল দুটো আলাদা আলাদাভাবে দেখবেন। দল তিনি আরও বলেন, বিএনপি নালিশ পার্টিতে পরিণত হয়েছে। যে কোনো নির্বাচনে তারা অভিযোগ করতেই থাকে। সিলেটের ব্যাপারেও তারা অভিযোগ করেছিল। কিন্তু সেখানে তাদের প্রার্থীই জিতেছে।
সকল রাজকীয় দায়িত্ব ছাড়লেন প্রিন্স হ্যারি ও মেগান, আহত হয়েছে রাজপরিবার, জানালো বাকিংহাম প্যালেস ≣ মাদকের কারণে যে ব্যক্তির দাঁত পড়ে যায়, তার পক্ষে কাউকে টেনে নিয়ে ধর্ষণ তো দূরে থাক, নিজেকে টেনে তোলার ক্ষমতাই থাকে না ≣ বালিশ ও পর্দাকাণ্ডের মতো ১১ হাজার টাকায় দুটি কলম কিনে ‘কলমকাণ্ড’ ঘটালেন রাবি অধ্যাপক ড. সফিকুন্নবী সামাদি

কৃষক লীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে কাদের বলেন, শহরে বসে কৃষক লীগের সংগঠন করলে চলবে না, তৃণমূল পর্যায়ে নিয়ে যেতে হবে। ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড পর্যায়ে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী ইউনিয়নের প্রতিনিধিদের পর্যন্ত গণভবনে ডেকে তাদের মতামত শুনেছেন। ভবিষ্যতে ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মীদেরও গণভবনে ডাকা হবে। আপনাদের কৃষকের স্বার্থ দেখতে হবে। তা না হলে সংগঠনের সঙ্গে কৃষকদের পাবেন না।

সংগঠনের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ প্রমুখ।শক্তিশালী হলে সরকারও শক্তিশালী হবে।

মন্তব্য

মন্তব্য