দৃষ্টিহীনদের দৃষ্টি ফিরিয়ে দেয়ার সদিচ্ছা ও অন্ধজনে আলো দানকারিরাই শ্রেষ্ট মানব শ্রেষ্ট প্রতিষ্ঠান-উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির


গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

মানব দেহ বা শরীরের অনেকগুলি অঙ্গ প্রত্যঙ্গ রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে গুরত্বপুর্ণ অঙ্গ হচ্ছে চোখ। যাদের চোখের দৃষ্টি শক্তি নেই তারা চলাফেরা থেকে সকল কাজে সবচেয়ে কষ্টে থাকে। আমরা চোখ দিয়ে আল্লাহর দেয়া পৃথিবীর সকল নিয়ামত দেখে শুনে ব্যবহার করি। হাজারো সুন্দর সৌন্দ্রর্য্য অবলোকন করি। কিন্তু দৃষ্টিহীন বা কম দৃষ্টি সম্পুর্ণ ব্যক্তিরা তা পারেনা। তাই এই সমাজে যারা দৃষ্টিহীনদের দৃষ্টি ফিরিয়ে দেয়ার জন্য চিকিৎসার মাধ্যমে দরিদ্র মানুষদের জন্য ভালো চিন্তাভাবনা করে তারা সত্যিকার অর্থে মহানুভবতার পরিচয় দিয়ে থাকে। সে দৃষ্টিকোণ থেকে বিজয়ের মাসে এ্যাপোলো চক্ষু হাসপাতাল ও সাঘাটার বন্ধু সংসদের সদস্যরা পথচলার শুরু থেকেই সমাজের অবহেলিত পিছিয়ে পড়া লোকদের পাশে থাকছে যা প্রশংসার দাবিদার। এক কথায় বলতে চাই দৃষ্টিহীনদের দৃষ্টি ফিরিয়ে দেয়ার সদিচ্ছা ও অন্ধজনে দেহ আলো দানকারিরাই পৃথিবীর শ্রেষ্ট মানব বা শ্রেষ্ট প্রতিষ্ঠান। ৭ ডিসেম্বর-২০১৯ইং শনিবার সাঘাটা বন্ধু সংসদের আয়োজনে সাঘাটার ডাকবাংলো চত্বরে এ্যাপোলো চক্ষু হাসপাতালের উদ্দোগে একদিনের বিনামুল্যে চক্ষু শিবির উদ্বোধন অনুষ্ঠানের সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাঘাটা উপজেলা চেয়ারম্যান ও বন্ধু সংসদের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির উপরোক্ত কথাগুলো চিকিৎসা নিতে আসা মানুষদের উদ্দেশ্য বলেন।
সাঘাটা বন্ধু সংসদের উপদেষ্টা ও সাঘাটা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাঘাটা থানা অফিসার ইনচার্জ বেলাল হোসেন। অন্যান্যের মাঝে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান মন্ডল, এসআই শাহাদৎ হোসেন, বন্ধু সংসদের সাধারন সম্পাদক ডিএসবি পুলিশ আব্দুর রাজ্জাক, প্রধান শিক্ষক জুলফিকার আলী, সাঘাটা প্রেসক্লাব সভাপতি জয়নুল আবেদীন, বন্ধু সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক ও প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের, সহ-অর্থ সম্পাদক আসলাম মোল্লা এ্যাপোলো চক্ষু হাসপাতালের অপটোমেটিক্স চিকিৎসক ডাঃ সুব্রত বর্ম্মণসহ অনেকে
বিনামুল্যে চক্ষু শিবিরে দৃষ্টিহীনদের দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা, ছানি রোগ, চোখের মাংস বৃদ্ধি, চোখের পাওয়ার নির্ণয়ের চিকিৎসা ও প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেয়। এছাড়াও চশমা দেয়া হয়।
এসময় দুর দুরান্তে থেকে আসা রোগিদের সেবায় বন্ধু সংসদের সদস্যরা সার্বিক সহযোগিতা করেন।
চিকিৎসা সেবায় অপটিশিয়ান আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুল মান্নান ও নুহ মাহমুদ রোগিদের পাশে ছিলেন।
কমপক্ষে ১৩০ জন রোগিকে বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়েছে বলে জানা যায়।

মন্তব্য

মন্তব্য