সার্ভায়ার শিশির বাবু কতৃর্ক যুবলীগ নেতা বাদশা খালেদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা।


কামরুল ইসলাম, চট্রগ্রাম //

লোহাগাড়ায় পুলিশ বিহিন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে গিয়ে লাঞ্ছিত হলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি পদ্মাসন সিংহ। এ সময় উপজেলা ভুমি অফিসের সার্ভায়ার শিশির স্বপন চাকমা ও মো. সাজ্জাদ হোসেন ও মাটি কাটা লেভারের হামলার শিক্ষার হয় বলে জানাযায়। গতকাল বুধবার দুপুর ১২ টার দিকে আমিরাবাদ ইউনিয়নের পশ্চিম হাজারবিঘা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। দেলোয়ার নামক এক ব্যাক্তির অভিযোগের প্রেক্ষিতে গতকাল পশ্চিম হাজারবিঘা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন এসিল্যান্ড পদ্মাসন সিংহ। উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ওই এলাকায় সরেজমিন তদন্ত করতে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া না গেলেও ক্ষমাতার জোর দেখিয়ে একটি মাটিভর্তি ডাম্প ট্রাকসহ দুইজন লেভার কে আটক করলে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে স্থানীয় লোকজন ট্রাকসহ লেভাদের রক্ষা করতে এগিয়ে আসলে সার্ভায়ার শিশির চাকমা এবং সাজ্জাদ হোসেন হাতে লাটি নিয়ে স্থানীয়দের বেধড়ক মারধর করে এতে স্থানীয়রা ও মারামারি আরম্ভ করলে ট্রাকসহ লেভারদের পেলে শিশির ও সাজ্জাদ পালিয়ে যায় এবং স্থানীয় জনগণ উত্তেজিত অবস্থায় পদ্মাসন সিংহকে লাঞ্ছিত করে তাতে সচেতন মহল বলেন এতে কার দোষ কিন্তু এই মামলায় যে লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের পরিচন্ন রাজনৈতিক নেতা বাদশা খালেদ ঘটনা স্থলে না থাকার পরেও তাকে মামলায় জড়ানো হল তা আমাদের জানাই। আরো জানাযায় এই বিষয়ে দেলোয়ার গত ১ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক, ও সহকারী কমিশনার ভুমি বরাবরে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছেন, এই বিষয়ে বাদশা খালেদ বলেন তিনি ঘটনার সময় বাড়িতে ছিলেন এবং ঘটনার সংবাদ পেয়ে ১ ঘন্টা পর ঘটনা স্থলে যান তাঁর সাথে সহকারী কমিশনার ভুমি অথবা তার কোন কর্মচারীর দেখাও হয়নি তিনি শপত করে বলতে আর না হয় তারই শপথ করুক তারা যে আমাকে ঘটনা স্থলে দেখেছে তারা কেন আমাকে মামলার আসামি করল আমি জানিনা তবে কিছুদিন পূর্বে দেলোয়ার আমার কাছে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা চেয়েছে আমি চাঁদা না দেওয়াই তাই এই অভিযোগ।

মন্তব্য

মন্তব্য