নির্বাহী কর্মকর্তার সহযোগিতা আশ্রীতা জান্নাত পেল মাথা গোঁজার ঠাই


জহিরুল ইসলাম,নবীনগর(ব্রাহ্মনবাড়িয়া)প্রতিনিধি //
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের অসহায় গরিব এক গৃহবধু জান্নতুল ফেরদৌসী স্বামী মো. সুলতান মিয়া দুই ছেলে দুই মেয়ে নিয়ে পাশ্ববর্তী বাঞ্ছারামপুর উপজেলার রূপসদী গ্রামে একটি বাড়িতে আশ্রীতা হয়ে স্বামীর আয়ে কোন রকমে দিন কাটছিল। নারায়নপুর গ্রামের বাড়িতে দেড় শতকের একখন্ড জমি ছাড়া আর কিছুই সুলতান মিয়ার ছিলনা।নবীনগরে মানবতার মানুষ হিসাবে পরিচিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহামম্মদ মাসুম এর কাছে জীবনের ঠিকানা খোঁজার সাহার্য্য প্রার্থী হয়, ওই অসহায় পরিবারটি। নির্বাহী কর্মকর্তা খোঁজ খবর নিয়ে তাদের মানবেতর চিত্র দেখে তাদের ওই এক খন্ড জমিতে একটি বাসগৃহ নির্মানের ব্যবস্থা করলেন। নির্বাহী কর্মকর্তার আহবানে সরলপথ ফাইন্ডেশন নামে একটি সামাজিক সংগঠন” ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের আর্থিক অনুদানে প্রায় এক লাখ ত্রিশ হাজার টাকা ব্যায়ে সোলার প্যানেল, টিউবওয়েল ও বারান্দাসহ দুই রুম বিশিষ্ট একটি আধাঁপাকা ঘর নির্মানের ব্যবস্থা করে দিলেন। সোমবার (১৮/১১) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নারায়নপুর গ্রামে উপস্থিত হয়ে ওই অসহায় পরিবারের জন্য নির্মিত ঘরের চাবি তুলে দেন জান্নাতুল ফেরদৌসির হাতে। এ সময় প্রকল্প কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোকারম হোসেন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা ইসলাম আল হাজিব, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী প্রনব বাবু, প্রেসকাব সভাপতি মাহাবুব আলম লিটন ও সাংবাদিক জালাল উদ্দিন মনির, গোলাম মোস্তাফা সহ সরলপথ ফাইন্ডেশনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

মন্তব্য