বরগুনার আমতলী উপজেলার মহিষকাটা বাজার থেকে ভুয়া ডাক্তার গ্রেফতার।

মোঃ শহিদুল ইসলাম,জেলা প্রতিনিধি :: ডাক্তার না হয়েও ডাক্তারের পরিচয় দিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে অর্থ। ভূয়া ডাক্তার মোঃ শহিদুল ইসলাম (৪০), পিতাঃ মৃত আঃ আজিজ মৃধা, সাং পূর্ব কুকুয়া, থানাঃ আমতলী, জেলাঃ বরগুনাকে আটক করেছে পটুয়াখালী র‍্যাব ৮ ক্যাম্প। শনিবার বিকাল আনুমানিক সাড়ে ৫ টার দিকে বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলার মহিষকাঠা বাজারের নিজ চেম্বার হতে তাকে হাতেনাতে আটক করা হয়।
র‌্যাব-৮, সিপিসি-১, পটুয়াখালী ক্যাম্প কোম্পানী অধিনায়ক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মোঃ রইছ উদ্দিন বলেন, আটককৃত ভূয়া ডাক্তার মোঃ শহিদুল ইসলাম(৪০), চিকিৎসা শাস্ত্রে পেশাধারী ডিগ্রী অর্জন না করেও প্রতারনামূলক ভাবে ডাক্তার পদবী ব্যবহার করে মেডিসিন, চর্ম, যৌন, বাত ব্যাথা, মেরুদন্ড সমস্যা, মা ও শিশু রোগের চিকিৎসক হিসাবে দীর্ঘ দিন যাবৎ চিকিৎসা সেবা দেয়ার নামে মানুষের সাথে প্রতারনা করে আসছে। ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, আমতলী উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভুমি) জনাব কমলেশ মজুমদারের নেতৃত্বে। অভিযুক্ত ভূয়া ডাক্তার মোঃ শহিদুল ইসলামকে বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ১২/২২/২৯ ধারা মোতাবেক ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। অভিযান পরিচালনার সময় বরগুনা সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি জনাব ডাঃ ইমদাদুল হক চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

মন্তব্য