পটুয়াখালী মা ইলিশ রক্ষায় সারারাত  নদীতে পুলিশ সুপার

মোঃ শহিদুল ইসলাম পটুয়াখালী জেলা  প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালী জাতীয় সম্পদ ইলিশের প্রজজন মৌসুমে ৯  অক্টোবর থেকে ৩০ শে অক্টোবর পর্যন্ত  ইলিশ আহরণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকায়। পটুয়াখালী পেশাগত দায়িত্ব পালনে রাতভর নদীতে পাহারাদারের দায়িত্ব পালন করেছেন পটুয়াখালী পুলিশ সুপার মো. মইনুল হাসান পিপিএম।

প্রতিনিয়ত রাত ১০ টা থেকে গভীর রাত ৩টা পর্যন্ত পায়রা নদীর এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত পর্যন্ত ট্রলারে নদী পাহাড়া দিতে দেখা গেছে।

পটুয়াখালীর পায়রা নদীর নির্মল স্রোত ঠেলে ছুটে চলছে ইঞ্জিনবাহি ট্রলার। প্রধান প্রজনন মৌসুম মা ইলিশ রক্ষায় হাতে লাইট নিয়ে কখনও দাড়িয়ে কখনও ট্রলারের সামনে বসে নদীতে মা ইলিশ পাহারাদেন পটুয়াখালী পুলিশ সুপার।

এসময় তার সাথে ছিলো অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহ্ফুজ রহমান, জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ডিবির অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খন্দকার জাকির হোসেন সহ বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

পুলিশ সুপার মইনুল হাসান পিপিএম জানান, সরকারি দায়িত্ব এবং নিজের দায়িত্ব বোধ থেকেই কাজ করছি। নিষেধাজ্ঞার ২২দিনে প্রতিদিন ২৪ঘন্টাই পুলিশের কয়েকটি টিম জেলার বিভিন্ন নদীতে টহল ও অনুসন্ধানে অব্যাহত থাকবেন। ফোর্সদের এ কাজে উৎসাহ দিতে তিনিও রাতে নদীতে ঘুরেন।

তিনি আরও বলেন, মা ইলিশ রক্ষা পেলে ইলিশ উৎপাদন বাড়ার সাথে সাথে জেলেদের এবং দেশের অর্থনৈতিক চাকা ঘুরবে। সবাই কে মা ইলিশ রক্ষায় কাজ করার জন্য আহবানও জানান তিনি।এবং জেলেদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন এই ২২ দিন কোন জেলে যেন মাছ না ধরেন।

তিনি আরও বলেন, ৯ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর ২২ দিন প্রধান প্রজনন মৌসুম মা ইলিশ রক্ষায় আমাদের গোয়েন্দা নজরদারি থাকবে। কেউ যদি এর ব্যাপতয় ঘটায় তাহলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এবং  তিনি নদীর আশেপাশের সবাইকে সচেতন হওয়ার জন্য বলেন।

মন্তব্য

মন্তব্য