এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ খোয়ালো বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক: এমন ম্যাচ শেষে হার-জিত ছাপিয়ে আফসোসটাই বড় হয়ে উঠলো। কেননা একদিনের ক্রিকেটে ২৩৯ রানের লক্ষ্যটা এখন একেবারেই মামুলি। কিন্তু মুশফিকের সেঞ্চুরির আক্ষেপটা পোড়াবে বাংলাদেশ দলের অন্য ক্রিকেটারদের। কেননা দল বেঁধে সবাই যখন ব্যর্থ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরছিলেন তখন মুশফিকই দাঁতে দাঁত চেপে শেষ পর্যন্ত লড়াই করে গেছেন। তার অনবদ্য ৯৮ রানে ভর করে ২৩৮ রান তুলেছিলো তামিমবাহিনী। যে রান টপকাতে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা সময় নিয়েছে ৪৪.৪ ওভার। ৭ উইকেটের জয়ে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ নিজেদের করে নিলো লঙ্কানরা।

প্রেমাদাসার মাঠে বারবারই হেরেছে টাইগাররা। এই মাঠে ইতিহাস পাল্টানোর সুযোগ খুব একটা আসে না। ১২ বছর পর সুযোগ পেয়েও টানা দুই ম্যাচই হালো বাংলাদেশ দল। গত শুক্রবার প্রথম ম্যাচে হেরেছিলো ৯১ রানে। আর আজ অসহায়ভাবে আত্মসমর্পণ করে সিরিজ খুইয়েছে খালেদ মাহমুদ সুজনের শিষ্যরা। আর এ নিয়ে প্রেমাদাসার মাঠে ৯ ম্যাচের সবকটিই হারলো বাংলাদেশ দল।

মালিঙ্গা না থাকায় ব্যাটসম্যানরা একটু সুযোগ পাবে বলে ধারণা করা হলেও তেমন কিছু দেখাতে পারেননি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। টপঅর্ডারে ব্যাটিংয়ে আসা তামিম (১৯), সৌম্য (১১), মোহাম্মদ মিঠুন (১২) ও মাহমুদউল্লাহ (৬) দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ ছিলেন। আগের ম্যাচে অর্ধশত পাওয়া সাব্বির ফেরেন ১১ রানে। মোসাদ্দেকও (১৩) মুশফিককে সঙ্গ দিতে পারেননি। সাকিবের স্থানে অভাব পূরণের কথা বলেছিলেন মিঠুন। কিন্তু ব্যাক টু ব্যাক ব্যর্থ হয়ে সে কথা রাখতে পারলেন না তিনি। ব্যর্থতার ভীড়ে উজ্জ্বল মুশফিক গতকাল তৃতীয় বাংলাদেশি হিসেবে ৬ হাজার রানের মাইফলক ছুঁয়েছেন।

শ্রীলঙ্কার হয়ে বল হাতে নুয়ান প্রদীপ, ইসুরু উদানা ও আকিলা ধনঞ্জয়া প্রত্যেকে ২টি করে উইকেট নেন।

২৩৯ রানের লক্ষ্যটা স্বাগতিকদের কাছে একেবারেই মামুলি ছিলো। ৭১ রানের জুটি গড়ে দুই ওপেনার করুনারত্নে ও আভিস্কা ফার্নান্দো লঙ্কানদের পথটা সহজ করে দেন। মেহেদি মিরাজের আঘাতে দলনায়ক করুনারত্নে ফিরে গেলেও আভিস্কা ছিলেন উজ্জ্বল। কুশল পেরেরার সঙ্গে ৫৮ রানের জুটি গড়ে ব্যক্তিগত ৮২ রানে মুস্তাফিজের শিকার হয়ে ফেরেন। সঙ্গী ফেরার একটু পর মুস্তাফিজের বলেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন কুশল পেরেরা (৩০)। পরে আর উইকেটের সন্ধান পায়নি সফরকারী দলের বোলাররা। কুশল মেন্ডিস ও অ্যাঞ্জেলা ম্যাথুসের ৯৩ রানের অনবদ্য জুটিতে ভর করে ৩২ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছায় লঙ্কা বাহিনী। আর সিরিজও পকেটে পুরে নিলো। কুশল মেন্ডিস ৪১ রানে এবং অ্যাঞ্জেলা ম্যাথুস ৫২ রানে অপরাজিত ছিলেন।

তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচটি মাঠে গড়াবে আগামী ৩১ জুলাই। একই মাঠে বিকাল ৩টায়।

মন্তব্য

মন্তব্য