পটুয়াখালী বাস মালিক সমিতির দা‌য়িত্ব নিলেন পটুয়াখালীর অ‌তি‌রিক্ত জেলা ম্যা‌জি‌স্ট্রেট

 

মোঃ শহিদুল ইসলাম পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি

পটুয়াখালীর দীর্ঘ প্র‌তিক্ষার পর আজ বিকা‌লে পটুয়াখালী বাস মি‌নিবাস মা‌লিক সমিতীর দা‌য়িত্বভার গ্রহন কর‌লেন অ‌তি‌রিক্ত জেলা ম্যা‌জি‌ষ্ট্রেট মোঃ নুরুল হা‌ফিজ। বিকাল সা‌ড়ে ৪টায় পটুয়াখালী জেলা প্রশাস‌কের দরবার হ‌লে অনু‌ষ্ঠিত বাস মি‌নিবাস মা‌লিক প‌ক্ষের মত‌বি‌নিময় সভায় এ দা‌য়িত্বভার গ্রহণ ক‌রেন।

এসময় বাস মি‌নিবাসের অর্ধশতা‌ধিক মা‌লিক উপ‌স্থিত ছি‌লেন।

অ‌তি‌রিক্ত জেলা ম্যা‌জি‌ষ্ট্রেট নুরুল হা‌ফিজ ব‌লেন, আজ থে‌কে বাস স্টা‌ন্ডে কোনো অ‌নিয়ম দুর্নী‌তি চল‌বেনা। আজ‌কের পর বাসস্ট্যা‌ন্ডে য‌দি কেউ চাঁদাবা‌জির সা‌থে জ‌ড়িত থা‌কে তাহ‌লে ক‌ঠোর হ‌স্তে দমন করা হ‌বে।

এর আ‌গে গত ২১ জুলাই বাণিজ্য মন্ত্রণালয় পরিচালক, বাণিজ্য সংগঠন (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ ওবায়দুল আজমের এক আদেশে পটুয়াখালীর অ‌তি‌রিক্ত জেলা ম্যা‌জি‌ষ্ট্রেট‌কে বাস মি‌নিবাস মা‌লিক গ্রু‌পের প্রশাসক হিসা‌বে নি‌য়োগ দেয়া হয়।

ওই অফিস আদেশে বলা হয়, পটুয়াখালী জেলা বাস-মিনিবাস মালিক গ্রুপের বর্তমান কমিটির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সমূহের বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট পটুয়াখালী নেতৃত্বে সহকারী পরিচালক বিআরটিএ, পুলিশ সুপার পটুয়াখালী প্রতিনিধি সমন্বয়ে তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

তদন্ত প্রতিবেদনে মালিক গ্রুপের সভাপতি এবং সেক্রেটারি কর্তৃক নিজেদের পছন্দমত গাড়ির সিরিয়াল দেয়া, গঠনতন্ত্র অনুযায়ী প্লেসিং না করা, গ্রুপের আয়-ব্যয়ের সঠিক হিসাব না থাকার অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হয়।

উল্লেখ্য, পটুয়াখালী জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির বর্তমান সভাপতি রিয়াজ মৃধা ও সাধারণ সম্পাদক দীর্ঘদিন যাবত এই সমিতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। দায়িত্ব পালনকালে তাদের বিরুদ্ধে সমিতির অর্থ তছরুপসহ বিভিন্ন ধরনের অনিয়মের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামেন বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সদস্যরা। এর প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে সমিতির বিভিন্ন কার্যক্রম এবং দুর্নীতির বিষয়ে তদন্ত সম্পন্ন করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় একটি প্রতিবেদন প্রেরণ করা হয়।

মন্তব্য

মন্তব্য